ইউরোপ

ইউক্রেনকে ‘সেকেন্ড-হ্যান্ড’ ট্যাংক দিতে জার্মানির সম্মতি

বার্লিন, ২৬ এপ্রিল – জার্মানির প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টিন ল্যাম্ব্রেচট মঙ্গলবার জার্মানিতে হওয়া ৪০ দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের একটি বৈঠকে জানিয়েছেন, জার্মানি ইউক্রেনকে তাদের ব্যবহৃত পুরাতন জেপার্ড বিমান বিধ্বংসী ট্যাংক দিতে যাচ্ছে।

খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই এই ট্যাংকগুলো ইউক্রেনে পাঠানোর অনুমতি দেবে জার্মান সরকার।

আর এর মাধ্যমে প্রথমবারের মতো ইউক্রেনকে প্রকাশ্যে কোনো ভারি অস্ত্র দেওয়ার বিষয়ে সম্মত হয়েছে জার্মানি।

জার্মানির ইউএস রামস্ট্যান বিমান ঘাঁটিতে ৪০ দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রীরা বৈঠকে বসেছেন। তাদের এ বৈঠকের লক্ষ্য হলো ইউক্রেনকে কিভাবে আরও অস্ত্র দেওয়া যায় সে বিষয়টি নিয়ে কথা বলা।
এদিকে ইউক্রেনকে সিজার কামান দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ফ্রান্স। অন্যদিকে যুক্তরাজ্য স্টারস্ট্রিক বিমান বিধ্বংসী মিসাইল ও ট্যাংক দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

কিন্তু জার্মানি এদিক দিয়ে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। তারা ইউক্রেনকে দেয়নি ভারি কোনো অস্ত্র।

আর এ কারণে জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎজ সমালোচনার মুখে পড়েছেন।

ওলাফ শলৎজ দুর্বল নেতা এমনও বলা হয়েছে।

তবে জার্মান চ্যান্সেলর নিজের সিদ্ধান্তকেই সঠিক বলে দাবি করেছেন, তার মতে ইউক্রেনকে জার্মানি ভারি অস্ত্র দিলে রাশিয়া ক্ষীপ্ত হতে পারে এবং ধরে নিতে পারে যে ন্যাটো এ যুদ্ধে যুক্ত হয়েছে।

তার দাবি, তিনি চান না ভুল বোঝাবুঝির কারণে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ লেগে যাক।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/২৬ এপ্রিল ২০২২

Back to top button