মধ্যপ্রাচ্য

ঈদ উপলক্ষে ২০০ বন্দিকে মুক্তির ঘোষণা হুথিদের

সানা, ২৫ এপ্রিল – আসছে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ২০০ যুদ্ধবন্দিকে মুক্তি দেবে ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীরা। দেশটির আর মাসিরাহ টেলিভিশন চ্যানেলকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে রোববার এ তথ্য জানিয়েছেন হুথি বিদ্রোহীগোষ্ঠীর যুদ্ধবন্দি বিষয়ক কমিটির প্রধান নির্বাহী আবদুল কাদের আল মুরতাদা।

সাক্ষাৎকারে আল মুরতাদা বলেন, ‘সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের সঙ্গে আমাদের যে বন্দি বিনিময় চুক্তি হয়েছিল, তারই অংশ হিসেবে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। জাতিসংঘ প্রতিনিধিকেও বিষয়টি জানানো হয়েছে। আমরা আশা করছি, বন্দি বিনিময় প্রশ্নে সৌদি জোটও আন্তরিক হবে।’

২০১৫ সালের শুরুর দিকে ইরান সমর্থিত হুথি বিদ্রোহীদের হামলার মুখে সৌদি-সমর্থিত ইয়েমেনের ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মনসুর আল হাদি ক্ষমতা ছেড়ে সৌদি আরবে পালিয়ে যান। ক্ষমতাচ্যুত এই প্রেসিডেন্টকে ফেরাতে সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ইয়েমেনে হুথিদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে।

কিন্তু এই অভিযানের শুরুর পর ইয়েমেনের রাজনৈতিক সংকটের অবসান হওয়ার পরিবর্তে তা আরও তীব্র হয়ে ওঠে। বর্তমানে ইয়েমেনে কার্যত দুই শাসকগোষ্ঠী সক্রিয় আছে। সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের সামরিক সহযোগিতার ওপর ভর করে দেশটির দক্ষিণাঞ্চল এখনও মনসুর হাদির নেতৃত্বাধীন সরকারের নিয়ন্ত্রণে আছে, অন্যদিকে উত্তরাঞ্চল সম্পূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণ করছে হুথি বিদ্রোহীরা।

টানা গৃহযুদ্ধ ও সংঘাত চলার ফলে প্রায় ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের তেলসমৃদ্ধ দেশ ইয়েমেন। ইয়েমেনের অর্ধেকেরও বেশি মানুষ খাদ্য ও ওষুধের মতো নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের গুরুতর সংকটে ভুগছেন বলে জানানো হয়েছে জাতিসংঘের প্রতিবেদনে।

পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে চলতি এপ্রিল মাসের শুরু থেকে যুদ্ধবিরতি চলছে হুথি বিদ্রোহী ও সৌদি-আমিরাত সামরিক জোটের মধ্যে।

জাতিসংঘের উদ্যোগে গত মাসে ইয়েমেনে যুদ্ধরত হুথি বিদ্রোহীগোষ্ঠী ও সৌদি-আমিরাত জোটের মধ্যে বন্দি বিনিময় সম্পর্কিত আলোচনা শুরু হয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত উভয়পক্ষের মধ্যে কোনো চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়নি।

এই চুক্তি সাক্ষরিত হলে সৌদি-আমিরাত জোটের হাতে বন্দি প্রায় ১ হাজার ৪০০ জন হুথি এবং ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট আব্দ-রাব্বু মনসুর হাদির ভাইসহ হুথি বিদ্রোহীদের হাতে বন্দি ৮২৩ জন জনের মুক্তির দুয়ার খুলবে।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এম এস, ২৫ এপ্রিল

Back to top button