ক্রিকেট

প্রয়োজনে টেস্টও খেলতে হবে মুস্তাফিজকে

ঢাকা, ২৪ এপ্রিল – মুস্তাফিজুর রহমান এমনিতেও অনেকদিন ধরেই টেস্ট দলের বাইরে। ইনজুরির ঝুঁকি কমিয়ে নিজের ক্যারিয়ার লম্বা করতে নিজেও টেস্ট খেলতে আর আগ্রহী নন বলে সম্প্রতি জানিয়েছেন দিল্লী ক্যাপিটালসের হয়ে আইপিএল খেলতে ভারতে থাকা এই বাংলাদেশি পেসার।

মুস্তাফিজের এমন ঘোষণার পর এবার বেশ কড়াভাবেই তার জবাব দিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপ। মুস্তাফিজ না চাইলেও তাকে টেস্টে ফেরানো হতে পারে বলে জানান বিসিবি সভাপতি।

শনিবার (২৩ এপ্রিল) রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে বিসিবি আয়োজিত ইফতার অনুষ্ঠানে পাপন জানান, আমরা ক্রিকেটারদেরকে একটা ফরম্যাট পাঠিয়েছিলাম, কে কোন ফরম্যাট খেলতে চায় (জানানোর জন্য)। যারা যারা টেস্ট খেলতে চায় বা তিন ফরম্যাটেই খেলতে চায় বা কোনো দুই ফরম্যাটে খেলতে চায়, সে অনুযায়ীই বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তির তালিকায় ক্রিকেটারদের রাখা হয়েছে।

তাসকিন আহমেদ আর শরিফুল ইসলাম চোটের কারণে খেলতে পারবেন না সামনে ঘরের মাঠের শ্রীলঙ্কা সিরিজ। দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকেই এই দুজনের ইঞ্জুরির পর দেশে ফিরে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে খেলতে গিয়ে চোট পেয়েছেন টেস্টের আরেক গুরুত্বপূর্ণ পেসার এবাদত হোসেনও। স্বভাবতই হঠাৎ করে শ্রীলঙ্কা সিরিজের জন্য টেস্টে পেসার সঙ্কটই দেখা দিয়েছে।

এদিকে মুস্তাফিজও টেস্ট খেলতে চান না বলে কেন্দ্রীয় চুক্তিতে টেস্ট খেলোয়াড়ের তালিকায় তার নাম নেই। তবে জাতীয় দলের প্রয়োজনে মুস্তাফিজকে টেস্ট দলে ফেরানো হবে বলে ইঙ্গিত দিয়ে পাপন বলেন, মোস্তাফিজ কিন্তু টেস্টের জন্য নাম লেখায়নি, সে বলেনি টেস্ট খেলতে চায়। তবে সে বললো কি বললো না, সেটা বড় কথা নয়। মুস্তাফিজকে যখন দরকার হবে অবশ্যই সে খেলবে। কারণ, এখন যদি আমার শ্রীলঙ্কা সিরিজেও তাকে দরকার হয়, অবশ্যই সে খেলবে।’

দেশের হয়ে সাদা জার্সিতে ১৪ ম্যাচে ৩০ উইকেট নেয়া মুস্তাফিজ এক বছরেরও বেশি সময় ধরে শুধু রঙিন পোশাকেই ক্রিকেট খেলছেন। বাংলাদেশের বোলিং আক্রমণের গুরুত্বপূর্ণ নাকম হওয়ায় এই সময়ের ভেতর মুস্তাফিজকে আর টেস্ট খেলার চাপের মধ্যে নিতেও চাইনি বিসিবি। তবে আসন্ন শ্রীলঙ্কা সিরিজে পেসার সঙ্কট দেখা দেয়ায় মুস্তাফিজও যে আবারও সাদা জার্সিতে মাঠে ফিরতে পারেন সে ইঙ্গিতই দিয়ে রাখলেন বিসিবি সভাপতি।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এম এস, ২৪ এপ্রিল

Back to top button