দক্ষিণ এশিয়া

‘আমি সত্য বলেছি’

ইসলামাবাদ, ২৩ এপ্রিল – পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও পাকিস্তান তেহেরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) প্রধান ইমরান খান দাবি করেছেন, তিনি সব সময় ঠিক ছিলেন এবং ন্যাশনাল সিকিউরিটি কমিটির (এনএসসি) সর্র্বশেষ বিবৃতি প্রমাণ করেছে তাকে ক্ষমতাচ্যুতিতে যুক্তরাষ্ট্রের ষড়যন্ত্র ছিল।

পাকিস্তানের পার্লামেন্টে অনাস্থা ভোটে হেরে ক্ষমতাচ্যুতির পর শনিবার প্রথমবারের মতো সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি করেন ইমরান খান। এ সময় তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের সভাপতিত্বে এনএসসির বৈঠকে এটা অনুমোদন হয়েছে চিঠির ব্যাপারটি সত্য এবং যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত পাকিস্তানের সাবেক রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আমেরিকান কর্মকর্তা ডোনাল্ড লু’র বৈঠক হয়েছে। সেই বৈঠকে ওই চিঠিটিতে অকপট ভাষা ব্যবহার করা হয়। খবর জিওটিভির।

ইমরান খান বলেন, আমি আরেকটু এগিয়ে বলবো তিনি (ডোনাল্ড লু) উদ্ধত ছিলেন…জো বাইডেন প্রশাসনের এই কর্মকর্তা আমাদের রাষ্ট্রদূতকে বলেন ইমরান খানকে অনাস্থা ভোটের মাধ্যমে সরাতে হবে। বৈঠকটি অনাস্থা প্রস্তাব তোলার আগে হয়েছিল বলে যোগ করেন পাকিস্তানের সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী।

আগের দাবির প্রতি অনড় থেকে ইমরান খান বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তা পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে বলেছিলেন তাকে (ইমরান) যদি ক্ষমতা থেকে সরানো হয় তবে ইসলামাবাদের সমস্ত কিছু মাফ করে দেওয়া হবে।

ইমরানের দাবি, পাকিস্তানের দূতের সঙ্গে ডোনাল্ড লু’র ওই বৈঠকের পর পিটিআই সরকারের মিত্ররা ‘অনুধাবন’ করতে শুরু করেছিল দেশের পরিস্থিতি ভালো নয় এবং সরকারকে ক্ষমতা থেকে সরানোর দরকার।

তিনি বলেন, কিন্তু আমি বলেবো আমাদের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি খুব ভালো ছিল…. আমাদের রপ্তানি, রেমিট্যান্স, রাজস্ব সংগ্রহ, কৃষি উৎপাদন এবং কৃষি পণ্যের মূল্য দুর্দান্ত ছিল।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/২৩ এপ্রিল ২০২২

Back to top button