ক্রিকেট

আইপিএলের ইতিহাসে কোহলির পরই বাটলার

মুম্বাই, ২৩ এপ্রিল – আইপিএলের ইতিহাসে এক মৌসুমে সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরি হাঁকানোদের তালিকায় শীর্ষে আছেন বিরাট কোহলি। ২০১৬ মৌসুমে তিনি ৪টি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন। এই তালিকায় এতোদিন দুটি করে সেঞ্চুরি নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন ক্রিস গেইল (২০১১), হাশিম আমলা (২০১৭), শেন ওয়াটসন (২০১৮), শিখর ধাওয়ান (২০২০) ও জস বাটলার (২০২২*)।

শুক্রবার অবশ্য গেইল-ধাওয়ানদের ছাড়িয়ে দ্বিতীয় স্থানটি দখলে নিয়েছেন বাটলার। মুম্বাইর ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে এদিন ঝড় তোলেন রাজস্থান রয়্যালসের ইংলিশ ব্যাটসম্যান। মাত্র ৫৭ বলে ৮টি চার ও সমান সংখ্যক ছক্কায় সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন। শেষ পর্যন্ত ৬৫ বলে ৯টি চার ও ৯ ছক্কায় ১১৬ রান করে আউট হন তিনি মোস্তাফিজুর রহমানের বলে।

এর আগে তিনি ২ এপ্রিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে ১০০ রান করেছিলেন। ১৮ এপ্রিল আগের ম্যাচে কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে করেছিলেন ১০৩ রান। আর শুক্রবার দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে করেন ১১৬ রান।

শুধু তাই নয়, আইপিএলের ইতিহাসে তিনি দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান যিনি ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন। ধাওয়ান ২০২০ সালে হাঁকিয়েছিলেন ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরি। চলতি আইপিএলে তিনি ৭ ইনিংসে ৮১.৮৩ গড়ে ৪৯১ রান করে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহাকদের তালিকায় শীর্ষে আছেন। দ্বিতীয় স্থানে থাকা লোকেশ রাহুলের সংগ্রহ ৭ ইনিংসে ২৬৫ রান।

বাটলারের ১১৬, দেবদূত পাড্ডিকালের ৫৪ ও সঞ্জু স্যামসনের অপরাজিত ৪৬ রানের ইনিংসে ভর করে রাজস্থান ২ উইকেট হারিয়ে ২২২ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করে।

জবাবে ৮ উইকেট হারিয়ে ২০৭ রানের বেশি করতে পারেনি দিল্লি ক্যাপিটালস। ব্যাট হাতে দিল্লির ঋষভ পন্ত ৪৪, পৃথ্বি’শ ৩৭, ললিত যাদব ৩৭, রোভম্যান পাওয়েল ৩৬ ও ডেভিড ওয়ার্নার ২৮ রান করেন।

বল হাতে রাজস্থানের প্রসিদ্ধ কৃষ্ণা ৪ ওভারে ১ মেডেনসহ ২২ রান দিয়ে ৩টি উইকেট নেন। ২টি উইকেট নেন রবীচন্দ্রন অশ্বিন।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এম এস, ২৩ এপ্রিল

Back to top button