ক্রিকেট

টানা ডাবল সেঞ্চুরি, কাউন্টিতে তোলপাড় ফেলে দিলেন পাকিস্তানি তারকা

ইসলামাবাদ, ২৩ এপ্রিল – পাকিস্তানি ওপেনার শান মাসুদ ইংলিশ কাউন্টি ক্রিকেটে রীতিমত তোলপাড় ফেলে দিয়েছেন। ডার্বিশায়ারের হয়ে নিজের প্রথম ম্যাচে ডাবল সেঞ্চুরি করে এমনিতেই ছিলেন পাদপ্রদীপের আলোয়। এবার টানা দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি করলেন তিনি। লেস্টারশায়ারের বিপক্ষে খেললেন ২১৯ রানের এক ইনিংস।

ইংলিশ কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে শান মাসুদের প্রথম ম্যাচ ছিল সাসেক্সের বিপক্ষে। ওই ম্যাচে একটি ইনিংসই ব্যাট করেছেন তিনি। খেলেছিলেন ২৩৯ রানের অনবদ্য ইনিংস। এবার টানা দ্বিতীয় ম্যাচে ডাবল সেঞ্চুরি বেরিয়ে এলো তার ব্যাট থেকে।

মাত্র চার ইনিংস ব্যাট করে নিজের নামের পাশে ৩২ বছর বয়সী মাসুদ লিখে নিলেন ৬০৮ রান। লেস্টারশায়ারের বিপক্ষে ২৪টি বাউন্ডারি এবং ১ ছক্কায় ২১৯ রানের ইনিংসটি খেলেন তিনি।

শান মাসুদের ২১৯ রানের ওপর ভর করে দ্বিতীয় দিন ৯০ ওভার খেলে ৪০১ রান তুলেছে ডার্বিশায়ার। সব মিলিয়ে দ্বিতীয় দিন শেষে দলটির স্কোর দাঁড়িয়েছে ৪ উইকেট হারিয়ে ৪৩৭ রান। তাতে ২২৪ রানের লিড দাঁড়িয়েছে তাদের। প্রথম দিন ১ উইকেট হারিয়ে ৩৬ রান করেছিল শান মাসুদের দল।

বাঁ-হাতি স্পিনার কলাম পার্কিনসন শেষ পর্যন্ত সক্ষম হন শান মাসুদকে প্যাভিলিয়নের পথ দেখাতে। পার্কিনসনের বলটি বাইরে থেকে শার্প টার্ন নিয়ে সোজা গিয়ে আঘাত হানে শান মাসুদের অফ স্ট্যাম্পে। বোল্ড হয়ে যান তিনি।

এমন ইনিংস খেলার পর মাসুদ বলেন, ‘যদি আমাদেরকে ভালো করতে হয়, তাহলে অবশ্যই বড় সেঞ্চুরি করতে হবে। টানা দুটি ডাবল সেঞ্চুরি করা অবশ্যই আমার জন্য খুশির। এটা এমন একটা কিছু, যা নিয়ে আমরা সব সময় আশা করি, কথা বলি।’

শান মাসুদ আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরার সময় লেস্টারশায়ারের প্রায় প্রতিটি খেলোয়াড়ই এসে হ্যান্ডশেক করেন মাসুদের সঙ্গে, তার অসাধারণ ব্যাটিংয়ের জন্য। এমনকি যার বলে বোল্ড হয়েছেন তিনি, সেই পার্কিনসনই সবার আগে এসে মাসুদের সঙ্গে হাত মেলান।

প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ২১৩ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছিল লেস্টারশায়ার।

অন্যদিকে শান মাসুদের জাতীয় দলের সতীর্থ শাহিন শাহ আফ্রিদির কল্যাণে মিডলসেক্স প্রায় জয়ের সামনে দাঁড়িয়ে। গ্লেমারগনের বিপক্ষে এই ম্যাচেই শাহিন শাহ আফ্রিদির কাউন্টি অভিষেক হলো।

কার্ডিফে দ্বিতীয়বারের মত অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটার মার্নাস লাবুশেনের উইকেট নিলেন আফ্রিদি এবং একই সঙ্গে এই ইনিংসে তিনি নিয়েছেন ৪ উইকেট। তার ক্যারিয়ার সেরা ২৯ রানের ওপর ভর করে মিডলসেক্স সংগ্রহ করেছে ৩৩৬ রান। তার আগে গ্লেমারগন অলআউট হয়েছিল মাত্র ১২২ রানে।

ওয়েলসের কাউন্টি দলটি দ্বিতীয় ইনিংসে ৬ উইকেট হারিয়ে ১০৪ রানে তুলতে পেরেছে কেবল। এখনও তারা পিছিয়ে রয়েছে ১১০ রান।

সূত্র : জাগো নিউজ
এম এস, ২৩ এপ্রিল

Back to top button