ইউরোপ

রুশ বাহিনীর কবলে নিজের ভবন, বোমা মারতে বললেন ইউক্রেনীয় ধনকুবের

কিয়েভ, ২১ এপ্রিল – এক ইউক্রেনীয় ধনকুবের সম্প্রতি তার দেশের সামরিক বাহিনীকে নিজের সদ্য নির্মিত প্রাসাদটি বোমা মেরে উড়িয়ে দিতে বলেছেন। কারণ প্রাসাদটি দখল করে ঘাঁটি তৈরি করে সেখান থেকে কিয়েভে রকেট ছুড়েছিল রাশিয়ান সেনাবাহিনী। আন্দ্রে স্ট্যাভনিটসার নামের এই ধনকুবের ট্রান্সইনভেস্টসার্ভিসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা।

যুদ্ধ শুরুর পর ইউক্রেন থেকে পালিয়ে তিনি পোল্যান্ডে চলে যান। কিন্তু তার ওই প্রাসাদের সঙ্গে যুক্ত থাকা একটি ওয়েবক্যামের মাধ্যমে দেখতে পান, রাশিয়ান সেনারা তার প্রাসাদ দখল করেছে এবং সব রকমের সামরিক সরঞ্জাম সেখানে এনে জড়ো করেছে। এসব দেখে তিনি ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনীকে তার ওই প্রাসাদে বোমা ফেলার আহ্বান জানান। খবর এনডিটিভির।

এই ধনকুবের ‘গুড মর্নিং ব্রিটেইন শো’কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, এটা আমার জন্য এক ধরনের স্পষ্ট সিদ্ধান্ত ছিল। তিনি জানান, রাশিয়ান সেনাদের তার বাড়ির চারপাশে ঘুরতে দেখে এবং এটিকে ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহার করতে দেখে তিনি ‘বিরক্ত’ হয়েছেন।

তিনি আরও জানান, তিনি পালিয়ে গেলেও তার নিরাপত্তা প্রহরীদের প্রাসাদে রেখে যান। কিন্তু রাশিয়ান সেনারা ওই নিরাপত্তা প্রহরীদের মোবাইল ফোন কেড়ে নেয় এবং তাদের উলঙ্গ করে নির্যাতন করেছে।

এই সময় তিনি দাবি করেন, তার প্রাসাদটি রাশিয়ান সেনারা দখলের পাশাপাশি আশপাশের বাড়িঘরে লুটপাট চালিয়েছে।

আন্দ্রে স্ট্যাভনিটসার বলেন, আমি দেখেছি রাশিয়ান সেনারা অন্য বাড়ি থেকে লুটপাট করে জিনিসপত্র এনে আমার বাড়িতে রাখছে। তাদেরকে সেসব বাড়ি থেকে টিভি, আইপ্যাড, কম্পিউটার এবং মানুষের ব্যক্তিগত জিনিসপত্র ট্রাকে ভরতে দেখেছি। আমি বিরক্ত হয়েছি। আমার বাড়ির ভেতর কিছু লোককে হাঁটতে দেখে আমার খুব খারাপ লাগছিল।

আন্দ্রে স্ট্যাভনিটসার ওই অনুষ্ঠানে আরও জানান, তিনি দেখেছেন তার বাড়িতে ১২টি সামরিক যান রাখা হয়েছে। কয়েকটি যানে টর্নেডো রকেট লঞ্চার ব্যবস্থা স্থাপন করা ছিল। এগুলো ৪০ কিলোমিটার দূরের বস্তুতে আঘাত হানতে পারে। বস্তুত তারা তার বাড়ি থেকে কিয়েভে হামলা চালাচ্ছিল।

সাক্ষাৎকারটি শেষ করেন তিনি এই বলে যে, ইউক্রেনকে বিজয়ী করতে যতটুকু সাহায্য করা সম্ভব সকটুকু করতে চাই। কারণ আমি মনে করি আমরা ইউরোপের নিরাপত্তা প্রহরী হিসেবে কাজ করছি এবং ওই জার… লাথি মেরে আমাদের ভূমি থেকে তাড়ানো আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমি যা করতে পারতাম এটি তার অল্প মাত্র।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/২১ এপ্রিল ২০২২

Back to top button