জাতীয়

ব্যবসায়ীদের সাথে সমঝোতা, আজ খুলছে নিউমার্কেট

ঢাকা, ২১ এপ্রিল – নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী আর ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষের জের ধরে টানা দুদিন বন্ধ থাকার পর আজ খুলছে নিউ মার্কেট। দুই পক্ষের সমঝোতা হওয়ার পর আজ সকাল থেকে নিউমার্কেটের সকল বিপণিবিতান খুলে দেয়ার কথা জানান ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের মহাপরিচালক নেহাল আহমেদ।

বুধবার (২০ এপ্রিল) দিবাগত রাতে রাজধানীর সাইন্সল্যাবে বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদে (বিসিএসআইআর) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়, ব্যবসায়ী মালিক সমিতি এবং ঢাকা কলেজ কর্তৃপক্ষের মধ্যে আলোচনা শেষে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। দীর্ঘ চার ঘণ্টা চলা বৈঠক শেষে দুই পক্ষের সমঝোতা হওয়ার কথা জানান ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের মহাপরিচালক নেহাল আহমেদ।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, বৃহস্পতিবার থেকে নিউ মার্কেটসহ ওই এলাকার সকল বিপণি কেন্দ্রগুলো খুলবে। আর ছুটির মধ্যে ঢাকা কলেজের ছাত্রদের হলে থাকার বিষয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেবে।

নেহাল আহমেদ বলেন, বৈঠকের পর আর কোনো বিভেদ থাকবে না বলে আশা করছি। আজ সকাল থেকে নিউ মার্কেটসহ আশপাশের সব মার্কেট ও দোকানপাট খুলবে। কলেজ যেহেতু আজ থেকে সরকারিভাবে বন্ধ, সেহেতু ছাত্রদের হলে থাকার বিষয় নিয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেবে।

এসময় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসায়ী-কর্মচারীদের রক্তক্ষয়ী এই সংঘর্ষের পেছনে তৃতীয় পক্ষের উসকানি ছিলো বলে দাবি করে তিনি বলেন, পুলিশ এি ব্যাপারে তদন্ত করে পদক্ষেপ নেবে।

ঢাকা কলেজের পাশে বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদের (সায়েন্স ল্যাবরেটরি) সভা কক্ষে ওই বৈঠকে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল অংশ নেয়। কলেজের শিক্ষকরাও উপস্থিত ছিলেন বৈঠকে। নেহাল আহমেদের নেতৃত্বে এই বৈঠকে ব্যবসায়ী নেতাদের পাশাপাশি পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক পদমর্যাদার একজনসহ আরও কয়েকজন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

রোজার মধ্যে ভোররাতে সেহেরি শেষ করার পরও বৈঠক চালিয়ে যান তারা। বৈঠক শেষে সাড়ে ৪টার দিকে সাংবাদিকদের সামনে এসে বৈঠকে আনীত সিদ্ধান্তের কথা জানান নেহাল আহমেদ।

তিনি বলেন, সৌহাদ্যপূর্ণ পরিবেশে সব পক্ষের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। ছাত্রদের ১০টি দাবি ছিলো, তার বেশিরভাগ দাবিই পূরণ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এর বাইরে ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন অভিযোগের কথাও সবাই শুনেছে। এর মাধ্যমে এটিরও একটি সমাধানে চলে এসেছি আমরা।

এর আগে, গত সোমবার (১৮ এপ্রিল) দিবাগত রাতে নিউ মার্কেটের একটি খাবার দোকানে ঢাকা কলেজের কয়েক শিক্ষার্থী মারধরের শিকার হওয়ার পর দুই পক্ষের এই সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়।

এ বিষয়ে দোকান মালিকরা জানান, দুই দোকানের কর্মীদের বচসা থেকে এক পক্ষ ঢাকা কলেজ ছাত্রাবাস থেকে ছাত্রলীগের কয়েক কর্মীকে ডেকে নেয়। তারা গিয়ে মারধরের শিকার হওয়ার পর ছাত্রাবাসে ফিরে আরও শিক্ষার্থীদের নিয়ে ভোররাতে নিউ মার্কেটে হামলা চালাতে গেলে বাঁধে সংঘর্ষ।

মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) দিনভর চলা এই সংঘর্ষে এক পথচারী ও নিমার্কেটের এক দোকানকর্মী নিহত হয়েছে। এছাড়া আহত হয়েছে আরও প্রায় অর্ধশত।

বুধবার সকাল থেকে পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হওয়ার পর নিউমার্কেটের দোকান খোলার তোড়জোর শুরু হলে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা আবারও হুঁশিয়ারি দেয়। পরে বিকালে কলেজ ফটকের সামনে আবারও কিছু হাতবোমা বিস্ফোরণের পর ওই এলাকার নিউমার্কেটসহ অন্যান্য মার্কেটের বিপণিবিতানের কোনো দোকানই আর খোলেনি।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এম এস, ২১ এপ্রিল

Back to top button