জাতীয়

দ্রুত মার্কেট খুলতে না পারলে শতকোটি টাকা লোকসানের আশঙ্কা

ঢাকা, ১৯ এপ্রিল – ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ীদের চলমান সংর্ষের কারণে বন্ধ আছে রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকার অন্তত ২০টি মার্কেটের দোকানপাট। দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আনতে পারলে শত কোটি টাকা ক্ষতির আশঙ্কা করছেন ব্যবসায়ীরা।ব্যবসায়ীরা বলছেন, ঈদের আর মাত্র কয়েক দিন বাকি।এই সময়ে এমন ঘটনা খুবই দুঃখজনক।

বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন গণমাধ্যমকে জানান, নিউমার্কেট ও চাঁদনিচকসহ আশপাশে ১৫ থেকে ১৬টি মার্কেট আছে। সেখানে ব্যবসা করছেন দেড় লাখের বেশি ব্যবসায়ী। এখন কমপক্ষে প্রতিদিন এক শ কোটি টাকার ব্যবসা হচ্ছে। খুবই দুঃখজনক যে ঈদের আগে কেনাকাটার মৌসুমে এমন ঘটনা ঘটছে। এতে আমাদের অনেক বেশি ক্ষতি হয়ে গেছে। আমরা পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে কথা বলেছি। বিকেলের মধ্যে মার্কেট খুলে দেওয়া হবে বলে, উনারা আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন। ঢাকা কলেজের কারও সঙ্গে কথা বলতে পারিনি। তারা তো যুদ্ধের মধ্যেই আছে।

সোমবার রাতে ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রায় আড়াই ঘণ্টা ধরে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। রাত ১২টার দিকে শুরু হওয়া এ সংঘর্ষ চলে রাত আড়াইটা পর্যন্ত। পরে মধ্যরাতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

সকালে ফের সংঘর্ষে জড়িয়েছে নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীরা এবং ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা। এতে ওই এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, উভয়পক্ষের মধ্যে ইটপাটকেল ছোড়াছুড়ি চলছে। তারা লাঠিসোঁটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মুখোমুখি অবস্থান করছে। কিছুক্ষণ পর পর ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

ব্যবসায়ীদের একটি অংশ রাস্তায় নেমে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে চলা সংঘর্ষে অংশে নিচ্ছে। আরেকটি অংশ ইট, পাথর সরবরাহ করছে। তবে এখন পর্যন্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশের পক্ষ থেকে কোনো ব্যবস্থা নিতে দেখা যায়নি।

এর আগে, ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে লাঠি, রড হাতে সড়কে নেমে এসে ঢিল ছুড়তে শুরু করে। এ সময় ব্যবসায়ীরাও বেরিয়ে এলে সংঘর্ষ শুরু হয়।

রাতের সংঘর্ষের জেরে এদিন সকাল থেকেই সায়েন্সল্যাব থেকে নীলক্ষেত পর্যন্ত রাস্তা অবরোধ করে রাখে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এর ফলে ওই রোডে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

সূত্র : আরটিভি
এম এস, ১৯ এপ্রিল

Back to top button