শিক্ষা

শিক্ষার্থী-ব্যবসায়ী সংঘর্ষ : দেশীয় অস্ত্রসহ মুখোমুখি দুই পক্ষ

ঢাকা, ১৯ এপ্রিল – রাজধানীর নিউ মার্কেট এলাকায় শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে সংঘর্ষ চলছে। ইটপাটকেল ছোড়াছুড়ি চলছে উভয়পক্ষের মধ্যে।

উভয়পক্ষই ইটপাটকেল, লাঠিসোঁটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মুখোমুখি অবস্থান করছে। তাদের মধ্যে অনেকেই হেলমেট পড়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

তবে এখন পর্যন্ত পুলিশের পক্ষ থেকে কোনো ব্যবস্থা নিতে দেখা যায়নি।

ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা রাস্তায় অবস্থানের পাশাপাশি কলেজের ছাদে অবস্থান নিয়েছে। তাদের সড়ক এবং ছাদ দুই জায়গা থেকেই ব্যবসায়ীদের দিকে ইটপাটকেল মারতে দেখা যায়। ছাদ আর সড়কের প্রতিরোধ এক সঙ্গে হওয়ায় ব্যবসায়ীরা পিছু হটে। আবার ব্যবসায়ীরা নিউ মার্কেট, গাউসিয়া মার্কেট, চন্দ্রিমা মার্কেট, চাঁদনী চক, ধানমন্ডি হকার্স মার্কেট এলাকায় জড়ো হয়ে শিক্ষার্থীদের ওপর ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে।

ব্যবসায়ীদের একটি অংশ সরাসরি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে চলা সম্মুখ লড়াইয়ে অংশে নিচ্ছে। আরেকটি অংশ ইট, পাথর সরবারাহ করছে।

অভিযোগ রয়েছে, নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ীদের মধ্যে যারা হামলায় অংশ নেয়নি বা দোকান বন্ধ করে ভেতরে অবস্থান করছে, তাদের জোর করে রাস্তায় নামিয়ে আনা হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) সকাল থেকে নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা। এরপর শুরু হয় সংঘর্ষ। সকাল সাড়ে ১০টার পর নীলক্ষেত মোড় থেকে সায়েন্সল্যাব পর্যন্ত এলাকায় থেমে থেমে সংঘর্ষ চলে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পুলিশ। কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণের শব্দও পাওয়া যায়।

সংঘর্ষের এক পর্যায়ে বেলা ১১টার দিকে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা কলেজের গেটে এবং ব্যবসায়ীরা চন্দ্রিমা সুপার মার্কেটের সামনের সড়কে অবস্থান নেয়।

রাতের সংঘর্ষের জেরে এদিন সকাল থেকেই সায়েন্সল্যাব থেকে নীলক্ষেত পর্যন্ত রাস্তা অবরোধ করে রাখে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এর ফলে সায়েন্সল্যাব, আজিমপুর ও মুক্তি ও গণতন্ত্র তোরণের রাস্তায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

সোমবার রাতে নিউমার্কেট এলাকায় ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রায় আড়াই ঘণ্টা ধরে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। দিনগত রাত ১২টার দিকে শুরু হওয়া এ সংঘর্ষ চলে রাত আড়াইটা পর্যন্ত। মধ্যরাতে দুই পক্ষকে ওই এলাকা থেকে সরিয়ে দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

সূত্র : জাগো নিউজ
এম এস, ১৯ এপ্রিল

Back to top button