মেহেরপুর

গাংনীতে গুলিবর্ষণ, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি আটক

মেহেরপুর, ১৯ এপ্রিল – আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের ওপর গুলি করার অভিযোগে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা যুবলীগ সভাপতি মোশাররফ হোসেনকে (৫২) আটক করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, সোমবার (১৮ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে গাংনী বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন জেলা পরিষদ মার্কেটে মোশাররফ হোসেনের ব্যক্তিগত কার্যালয়ের সামনে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সাইফুজ্জামান সিপুসহ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে তার বাগবিতণ্ডা হয়। এসময় সাইফুজ্জামান সিপুসহ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের ওপর পর পর চার রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে মোশাররফ। তবে গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ায় কেউ আহত কিংবা নিহত হয়নি।

এরপর উত্তেজিত আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মোশাররফের অফিসে হামলা করে এবং মেহেরপুর-চুয়াডাঙ্গা সড়ক অবরোধ করে তার শাস্তির দাবি জানান।অবরোধের কারণে প্রায় এক ঘণ্টা সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে। এসময় উপস্থিত হন মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য ও গাংনী উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক মোখলেছুর রহমান মুকুল। এক পর্যায়ে পুলিশ মোশাররফকে আটক করার পর অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়।

এ বিষয়ে এমপি সাহিদুজ্জামান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক মোখলেছুর রহমান মুকুল বলেন, মোশাররফ হোসেনসহ তার লোকজন গাংনীতে বেশ কিছুদিন ধরে নানা রকম বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে। তিনি অফিসে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সব সময় লোকজনকে ভয়ভীতি দেখান। যা সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করছে।

এ বিষয়ে গাংনী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, কেন গুলি করেছে এবং তার অস্ত্রের লাইসেন্স আছে কি না তা যাচাই করার জন্য মোশাররফ হোসেনকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

সূত্র : আরটিভি
এম এস, ১৯ এপ্রিল

Back to top button