উত্তর আমেরিকা

ইউক্রেনে আরও অস্ত্র সহায়তা পাঠানো নিয়ে দ্বিধায় বাইডেন প্রশাসন

ওয়াশিংটন, ১৮ এপ্রিল – ইউক্রেনের সেনারা রাশিয়ার সেনাদের হুমকি-ধামকি উপেক্ষা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গত সপ্তাহের শেষে রুশ বাহিনী আত্মসমর্পণ করার আহ্বান জানালেও ইউক্রেনের সেনারা সেটি প্রত্যাখান করে।

মানে তারা রাশিয়ার সঙ্গে শেষ পর্যন্ত যুদ্ধ করে যেতে চায়। এ কারণে তারা বিশ্বের কাছে আরও অস্ত্র চাচ্ছে।

আর ঠিক একই সময়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও তার মিত্ররা দ্বিধায় পড়েছে তারা কতদূর পর্যন্ত ইউক্রেনকে অস্ত্র সহায়তা দিয়ে যেতে পারবে?

কারণ রাশিয়া ইঙ্গিত দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটোর পাঠানো অস্ত্র ইউক্রেনে ঢোকা মাত্র হামলা করবে। তারা আরও ইঙ্গিত দিয়েছে ইউক্রেনে অস্ত্র আসা বন্ধ করতে তারা আরও আক্রমণাত্বক হবে।

তাছাড়া বর্তমানে নতুন শঙ্কা দেখা দিয়েছে ইউক্রেনের কাছে যে গোলাবারুদ আছে সেগুলো দ্রুতই শেষ হয়ে যাবে। কারণ দোনবাসে রুশদের বড় ধরনের হামলা প্রতিহত করতে হবে তাদের।

দোনবাসে রুশ সেনারা ইউক্রেনীয় সেনাদের অবরুদ্ধ ও ঘিরে ফেলার পরিকল্পনা করছে। আর এটি করতে ব্যাপক হামলা চালাবে তারা।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদমির জেলেনস্কি এই মুহূর্তে তার মিত্রদের কাছে অস্ত্র সহায়তা অব্যহত রাখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।

জেলেনস্কি বলছেন, দোনবাসের আসন্ন যুদ্ধটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। পশ্চিমা দেশগুলোর বোঝা উচিত দোনবাসের মাধ্যমেই পুতিনকে থামানোর সুযোগ।

জেলেনস্কি হুশিয়ারি দিয়েছেন, যদি পুতিনকে দোনবাসে থামানো না যায় তাহলে তিনি এরপর ফের কিয়েভের দিকে নজর দেবেন।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/১৮ এপ্রিল ২০২২

Back to top button