দক্ষিণ এশিয়া

পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হলেন প্রধানমন্ত্রীর ছেলে হামজা শাহবাজ

ইসলামাবাদ, ১৬ এপ্রিল – নানা নাটকীয়তার পর পিএমএল-এন ও জোটের দলগুলোর প্রার্থী, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের ছেলে হামজা শাহবাজ পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের নতুন মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ট্রিবিউন এক্সপ্রেস শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

৩৯৭ সদস্যের পার্লামেন্টে মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার জন্য শাহবাজের প্রয়োজন ছিল ১৮৬ ভোট। তিনি ১৯৭ ভোট পেয়ে মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হন।

এই নির্বাচনে শাহবাজের প্রতিদ্বন্দ্বি ছিলেন পারভেজ এলাহি। পিএমএল-কিউর এলাহির পেছনে সমর্থন ছিল পিটিআই-এর।

মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচনের গুরুত্বপূর্ণ অধিবেশনে ঘটে নানা নাটকীয় ঘটনা। ডেপুটি স্পিকার দোস্ত মুহাম্মদ মাজারির ওপর চড়াও হয়েছেন ইমরান খানের তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) দলের সদস্যরা। স্পিকার দোস্ত মুহাম্মদ মাজারি তার আসন গ্রহণ করলে ইমরান খানের দলের সদস্যরা দল পরিবর্তন করায় তার ওপর হামলে পড়েন।

টেলিভিশনে প্রচারিত ফুটেজে দেখা গেছে, নিরাপত্তা রক্ষীদের উপস্থিতির পরও মাজারিকে চড় ও ঘুষি মারা হচ্ছে। এমনকি তার চুল ধরেও টানাহেঁচড়া করা হয়। এরপর নিরাপত্তা কর্মীরা এসে তাকে সরিয়ে নেন।

জানা গেছে, পিটিআই দলের সংসদ সদস্যরা পার্লামেন্টে লোটা (বদনা) নিয়ে ঢোকেন। লোটা লোটা বলে শ্লোগান দিতে দিতে তার দিকে বদনা ছুড়ে মারেন। এরপরই ওই টানাহেঁচড়ার ঘটনা ঘটে।

পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে উঠলে নিয়ন্ত্রণে পুলিশের কাছে অনুরোধ জানানো হয়। এরপর দাঙ্গা বিরোধী বাহিনীর কর্মীরা বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট পরে সমাবেশে প্রবেশ করে পিটিআইয়ের অন্তত তিনজন এমপিকে গ্রেফতার করে।

এই হামলার ব্যাপারে সাংবাদিকদের মাজারি বলেছেন, যারা আমার উপর হামলা চালিয়েছে তারা আসলে সামরিক শাসন চায়।

এরপর পিটিআই সদস্যরা ওয়ার্ক আউট করে চলে গেলে ভোটাভুটি শুরু হয়।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/১৬ এপ্রিল ২০২২

Back to top button