ক্রিকেট

অধিনায়কত্ব উপভোগ করছেন হার্দিক

মুম্বাই, ১৫ এপ্রিল – সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে হার্দিক পান্ডিয়া হাফ সেঞ্চুরি করলেও জয় পায়নি গুজরাট টাইটান্স। এবারের আইপিএলে নতুন দলকে নেতৃত্ব দিয়ে প্রথম হারের তিক্ত স্বাদ পান ভারতীয় অলরাউন্ডার। বৃহস্পতিবার তার ইনিংস সেরা ব্যাটিংয়ে আবারো জয়ে ফিরল এবং এখন টেবিলের এক নম্বর দল গুজরাট।

এবারের আইপিএলে নতুন দল গুজরাট। এই দলকে দারুণভাবে এগিয়ে নিচ্ছেন নতুন অধিনায়ক হার্দিক। বৃহস্পতিবার ৫২ বলে ৮৭ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে দলকে এনে দেন ১৯২ রানের বড় সংগ্রহ। তারপর ৯ উইকেটে ১৫৫ রানে রাজস্থানকে থামাতে যশ ধুল ও লকি ফার্গুসন তিনটি করে উইকেট নেন। তবে সেরা ইনিংসের পর বল হাতে ১ উইকেট পেয়ে ৩৭ রানের জয়ের দিনে ম্যাচসেরা হয়েছেন হার্দিক।

৫ ম্যাচে ৪ জয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে এখন গুজরাট। দলের সঙ্গে সময়টা ভালোই কাটছে হার্দিকের। দলকে নেতৃত্ব দেওয়া উপভোগ করছেন ২৮ বছর বয়সী অলরাউন্ডার, ‘অধিনায়কত্ব মজার এবং এটা আমাকে দায়িত্ব নিতে ও পতাকা বয়ে বেড়ানোর সুযোগ দেয়। এই পুরো দল একে অন্যকে এগিয়ে নিচ্ছে। আমি চেয়েছিলাম সবাই খুশি হোক।’

দারুণ ব্যাটিংয়ের পর বল হাতে নিয়ে ১৮তম ওভারে ইনজুরিতে পড়েছিলেন হার্দিক। ওই ওভারের শেষ তিন বল করতে হয়েছিল বিজয় শঙ্করকে। চোটপ্রবণ হার্দিককে নিয়ে তাই বড় শঙ্কা জেগেছিল। ম্যাচ শেষে গুঞ্জন উড়িয়ে দিলেন তিনি, ‘আজ রাতে অনেক পরিশ্রম গেছে। এটা কেবল ক্র্যাম্প ছিল, গুরুতর কিছু নয়।’

টানা দ্বিতীয় ম্যাচে পঞ্চাশ ছাড়ানো ইনিংস খেলে হার্দিকের চোখ এখন জাতীয় দলের জার্সি পরায়। বিশেষ করে চার নম্বরে উঠে এসে ব্যাটিং করে নিজের সামর্থ্যের প্রমাণ দিচ্ছেন দারুণভাবে। ব্যাটিং পজিশনে পরিবর্তন নিয়ে তিনি বলেছেন, ‘আমি এত দীর্ঘ সময় ব্যাটিংয়ে অভ্যস্ত নই। এটা আমাকে অনেক সময় দেয়। আমি হিসাব করে ঝুঁকি নিতে পারি। শেষ ম্যাচে আমি পারিনি, কিন্তু আজ পারলাম। সাধারণত আমি সেই পরিস্থিতিতে ব্যাট করি যখন ১২ বলে ৩০ রান দরকার হয়। এটা কঠিন কিন্তু এখন চারে আমি খেলা নিয়ন্ত্রণ করতে পারি।’

সূত্র : রাইজিংবিডি
এম এস, ১৫ এপ্রিল

Back to top button