পশ্চিমবঙ্গ

পশ্চিমবঙ্গে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের কথা ভাবা যায় না: দিলীপ ঘোষ

কলকাতা, ১২ এপ্রিল – পশ্চিম বাংলায় শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হবে, এটা দুঃস্বপ্নেও ভাবা যায় না। বালিগঞ্জ ও আসানসোল- দুই কেন্দ্রের উপনির্বাচন নিয়ে মন্তব্য করলেন বিজেপির সর্ব ভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ। মঙ্গলবার নিউটাউনে প্রাতঃভ্রমণে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন। দুই কেন্দ্রের উপনির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “গত ছ-সাত মাস ধরে নির্বাচন চলছে। একই ধরনের নির্বাচন হচ্ছে। পশ্চিম বাংলায় শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হবে, তা কল্পনা করা যায় না। মানুষ নিজের ভোট দিক, এটাই আমরা চাই।”

দিলীপ ঘোষের আরও সংযোজন, “গণতন্ত্রের কোনও মানে হয় না। নির্বাচন কমিশনকে আমরা সব জানাই। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দেখা যায় প্রহসনে পরিণত হয়েছে সবই। কলকাতা কর্পোরেশন এবং অন্যান্য কর্পোরেশনে যেভাবে ইলেকশন হয়েছে, তাতে গণতন্ত্র আছে বলে মনে হয় না।” তবুও তিনি আশাবাদী, সাধারণ মানুষ ভোট দেবেন। ফলাফল যাই হবে, সেটাই তাঁরা মাথা পেতে নেবেন। তবে ভোটদান হওয়া উচিত সেটাই বলেন।

প্রসঙ্গত, দুই নির্বাচন ঘিরে বাংলায় বিক্ষিপ্ত অশান্তি হচ্ছে সকাল থেকেই। ভোট শুরুর আগে থেকেই আসানসোলের বিভিন্ন বুথে উত্তেজনা তৈরি হয়। রিগিংয়েরও অভিযোগ ওঠে। আসানসোলের সব কটি বুথকেই স্পর্শকাতর ঘোষণা করা হয়েছে। আঁটোসাঁটো নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই পুলিশের সঙ্গে বচসা হয় অগ্নিমিত্রা পালের। পোলিং এজেন্টকে বসতে না দেওয়ার অভিযোগে পুলিশের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন তিনি। অগ্নিমিত্রা পালের গাড়িও ভাঙচুর করা হয় বলে অভিযোগ। বালিগঞ্জের উপ নির্বাচনেও একাধিক বুথে উত্তেজনা তৈরি হয়। বুথের ভিতর কেন কলকাতা পুলিশের কর্মীরা, সে প্রশ্ন তুলে বিক্ষোভ দেখান প্রার্থীরা। সকাল থেকেই বিক্ষিপ্ত অশান্তি খবর মিলছে।

এম এস, ১২ এপ্রিল

Back to top button