ইসলাম

যে নিয়মে সেহরি ও ইফতার করবেন

মুনশি মুহাম্মদ উবাইদুল্লাহ

সেহরি ও ইফতার মাহে রমজানের অন্যতম দুটি অনুষঙ্গ। এর মৌলিক নিয়মকানুন ও দোয়াগুলো কী? হাদিসের আলোকে তা নিয়ে নিন্মে আলোচনা করা হলো-

সেহরি খাওয়া
সেহরি খাওয়া সুন্নত। পেট ভরে খাওয়া জরুরি নয়, এক ঢোক পানি পান করলেও সেহরির সুন্নত আদায় হবে। (সহিহ মুসলিম : ১/৩৫০)।

খাওয়ার সময়
সুবহে সাদিকের কাছাকাছি সময় সেহরি খাওয়া মুস্তাহাব। তবে এত দেরি করা মাকরুহ যে, সুবহে সাদিক হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা হয়। (আল মুজামুল আওসাত : ২/৫২৬)।

ইফতার করা
দেরি না করে সূর্যাস্তের সঙ্গে সঙ্গে ইফতার করা মুস্তাহাব। (সহিহ বোখারি : ১/২৬৩)।

ইফতারের সময়
মাগরিবের নামাজ পড়ার আগেই ইফতার করে নেবেন। যেন সূর্যাস্তের সঙ্গে সঙ্গে ইফতার করার সওয়াব পাওয়া যায়। (তিরমিজি : ৬৯২)।

যা দিয়ে ইফতার
খেজুর দ্বারা ইফতার করা মুস্তাহাব। খেজুর না পেলে পানি দ্বারা ইফতার করবেন। (তিরমিজি : ৬৯৪)।

ইফতারের আগে দোয়া
ইফতারের সময় দোয়া কবুল হয়। তাই এ সময় বেশি বেশি দোয়া-ইস্তিগফার করতে হয়। বিশেষত এ দোয়া পড়া যায়—
اَللهُمَّ إِنِّيْ أَسْأَلُكَ بِرَحْمَتِكَ الَّتِيْ وَسِعَتْ كُلَّ شَيْءٍ أَنْ تَغْفِرَ لِيْ
অর্থ : হে আল্লাহ! আমি তোমার কাছে তোমার সেই রহমতের উসিলায় প্রার্থনা করছি, যা সব বস্তুকে পরিবেষ্টিত। তুমি আমাকে মাফ করে দাও। (সুনানে ইবনে মাজাহ : ১৭৫৩)।

ইফতার গ্রহণের সময় দোয়া
ইফতার গ্রহণের সময় রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এ দোয়া পড়তেন—
اَللهُمَّ لَكَ صُمْتُ وَعَلىٰ رِزْقِكَ أَفْطَرْتُ
অর্থ : হে আল্লাহ! আমি তোমার জন্যই রোজা রেখেছিলাম এবং তোমার রিজিক দ্বারাই ইফতার করলাম। (সুনানে আবি দাউদ : ২৩৫৮)।

ইফতারের পর দোয়া
ইফতারের পর রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এ দোয়া পড়তেন—
ذَهَبَ الظَّمَأُ وَابْتَلَّتِ الْعُرُوْقُ وَثَبَتَ الْأَجْرُ إِنْ شَاءَ اللهُ
অর্থ : পিপাসা দূর হলো, শিরা-উপশিরা সতেজ হলো। আর আল্লাহতায়ালা চান তো রোজার সওয়াব লিপিবদ্ধ হলো। (সুনানে আবি দাউদ : ২৩৫৭)।

এম এস, ১২ এপ্রিল

Back to top button