রসনা বিলাস

ইফতারে বানিয়ে ফেলতে পারেন মজাদার হালিম

রমজান মাসে একটু হালিম চেখে না দেখলে কি হয়? মধ্যপ্রাচ্যের এই খাবার এখন অনেক দেশেই বেশ জনপ্রিয়। হোটেল থেকে না কিনে সুস্বাদু হালিম ইচ্ছা করলে বাড়িতেও বানিয়ে ফেলতে পারেন।

হালিম বানাতে যা যা লাগবে

হাড় ছাড়া পাঁঠার মাংস- ৫০০ গ্রাম

ছোলার ডাল- ১৫০ গ্রাম

মুগ ডাল- ১৫০ গ্রাম

মুসুর ডাল- ১৫০ গ্রাম

বিউলির ডাল- ১৫০ গ্রাম

দালিয়া- ১ কেজি

কামিনি আতপ চাল- ১০০ গ্রাম

জিরে গুঁড়া- ৪ টেবিল চামচ

ধনে গুঁড়া- ৪ টেবিল চামচ

হলুদ গুঁড়া- ২ টেবিল চামচ

মরিচ গুঁড়া: ১ চেবিল চামচ

সাদা মরিচ গুঁড়া- ২ চা চামচ

গোলমরিচ গুঁড়া- ১ চা চামচ

গরমমশলা গুঁড়া- ১ টেবিল চামচ

কসুরি মেথি- ১ টেবিল চামচ

সাদা তেল- ৪০০ গ্রাম

ঘি- ২০০ গ্রাম

পেঁয়াজ- ৫০০ গ্রাম

পুদিনা পাতা- ১০০ গ্রাম

আদা- ১০০ গ্রাম

রসুন- ২০০ গ্রাম

জাফরান- ২ গ্রাম

দই- আধ কাপ

লবণ- স্বাদমতো

যেভাবে বানাবেন

সব রকম ডাল, দালিয়া ও চাল ভাল করে ধুয়ে নিয়ে দুই ঘণ্টা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। আদা-রসুন বাটা, একটু লবণ, শুকনো মরিচ গুঁড়া, গরম মশলা গুঁড়া ও সামান্য হলুদ গুঁড়া দিন। মাংসের টুকরোগুলি ভালো করে মাখিয়ে প্রেশার কুকারে চারটি সিটি দিয়ে দিন। এবার কুকারের ঢাকনা খুলে আরও ১৫-২০ মিনিট ধরে ফোটান। ডাল-চালের মিশ্রণে মধ্যে এক টেবিল চামচ আদা রসুন বাটা, লবণ, হলুদ গুঁড়া দিয়ে ভালো করে সেদ্ধ করে নিন।

এবার একটি বড় হাঁড়ি নিয়ে তেল গরম করুন। পেঁয়াজ কুচি ভালো করে ভেজে নিয়ে আদা-রসুন বাটা দিয়ে কষিয়ে নিন। সব গুঁড়া মশলা দিয়ে নাড়াচাড়া করুন। সেদ্ধ করে রাখা মাংস দিয়ে দিন। ভালো করে সাঁতলান। এবারে এর মধ্যে দই দিয়ে আরও ১০-১৫ মিনিট সাঁতলান। এরপর তাতে চাল, ডাল, দালিয়ার মিশ্রণ ঢালুন। ঘি দিয়ে ভালো করে মেশান। হালকা আঁচে আস্তে আস্তে ফোটান আধ ঘণ্টা ধরে। উপর থেকে কেশরের জল ছড়িয়ে দিন। ব্যস, তৈরি হালিম। বেরেস্তা, লেবু ও ধনেপাতা, পুদিনাপাতা উপর দিয়ে ছড়িয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার হালিম।

এম এস, ০৬ এপ্রিল

Back to top button