জাতীয়

দুঃশাসনের অবসানের আলামত দেখছে জনগণ: ফখরুল

ঢাকা, ০৫ এপ্রিল – দেশে স্বৈরাচারী শাসন কায়েম রাখতে সরকার বেপরোয়া হয়ে উঠেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেছেন, ‘একদলীয় কর্তৃত্ব চিরস্থায়ী করতে সরকার জনগণের মর্যাদা, মানবতা ও নাগরিক স্বাধীনতাকে পদদলিত করছে। তবে দুঃশাসনের অবসানের আলামত ইতোমধ্যেই ফুটে উঠতে শুরু করেছে, যা দেশের জনগণ দেখছে। এ সরকার আর বেশিদিন ক্ষমতা ধরে রাখতে পারবে না, জনগণের বিজয় হবেই।’

মঙ্গলবার (৫ এপ্রিল) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়ে রাষ্ট্রক্ষমতা জবরদখলকারী আওয়ামী লীগ সরকার দীর্ঘকাল দেশে স্বৈরাচারী শাসন কায়েম রাখতে বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার করে কারান্তরীণ করতে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। বিরামহীন গতিতে বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলোর নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও কাল্পনিক কাহিনী তৈরি করে মামলা করা এবং গ্রেফতার করে কারাগারে নিক্ষেপের মূল লক্ষ্যই হচ্ছে জনগণের ওপর শোষণ-নির্যাতন অব্যাহত রাখা।

তিনি আরও বলেন, ‘ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা যুবদলের সহ-সাধারণ সম্পাদক আতিকুল ইসলাম বেগ ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মামুনসহ দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও বানোয়াট মামলার ঘটনা বর্তমান অবৈধ সরকারের চলমান দমন-নিপীড়নেরই অংশ।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘মানুষের ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে এবং বর্তমান সরকারের সব অপকর্ম ও দুঃশাসন রুখে দিতে জনগণ সাহসিকতার সঙ্গে আন্দোলন-সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়বে।’

অবিলম্বে দলীয় নেতাকর্মীদের নামে দায়ের করা অসত্য মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব।

সূত্র : জাগো নিউজ
এম এস, ০৫ এপ্রিল

Back to top button