ইউরোপ

ইউক্রেনের বুচায় স্বাধীন তদন্তের আহ্বান জাতিসংঘের

কিয়েভ, ০৪ এপ্রিল – ইউক্রেনে রুশ সেনাদের হত্যাকাণ্ডের যে খবর প্রকাশ হয়েছে তার ‘স্বাধীন এবং কার্যকর‘ তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন।

এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের প্রধান মিশেল ব্যাচেলেট বলেছেন, রাস্তায় পড়ে থাকা বেসামরিক মানুষদের মরদেহ এবং যত্রতত্রভাবে দেওয়া কবরের ছবি দেখে আমি খুবই মর্মাহত।

তিনি বলেন, সত্য, ন্যায়বিচার, জবাবদিহিতা নিশ্চিতের পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি ও তাদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে বুচায় কি ঘটেছে তার স্বাধীন এবং কার্যকর তদন্তে সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়া জরুরি।

মিশেল ব্যাচেলেট আরও বলেন, বুচায় এবং অন্য এলাকার তথ্যগুলো সম্ভাব্য যুদ্ধাপরাধ, আন্তর্জাতিক মানবিক আইনের কঠোর লঙ্ঘন এবং আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনের ভয়ঙ্কর ব্যত্যয়ের ব্যাপারে গুরুতর ও উদ্বেগজনক জিজ্ঞাসা তৈরি করেছে।

প্রসঙ্গত, স্থানীয় সময় রোববার স্যাটেলাইট চিত্র প্রকাশ করে চলমান যুদ্ধ পরিস্থিতিতে ইউক্রেনের বুচা শহরের একটি গির্জায় ৪৫ ফুট দীর্ঘ দুর্গে গণকবর শনাক্ত হয়েছে বলে দাবি করে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বেসরকারি মহাকাশপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান মাক্সার টেকনোলজিস।

রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের ৩৭ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর বুচা। প্রায় এক মাস ধরে রুশ সেনাবাহিনীর দখলে থাকার পর সম্প্রতি এর নিয়ন্ত্রণ নেয় ইউক্রেন।

শহরটির মেয়র জানিয়েছেন, শহরের রাস্তায় রাস্তায় মরদেহ পড়ে আছে। ২৮০ জনের মরদেহ জড়ো করে গণকবর দেওয়া হয়েছে। অনেক মরদেহের হাত ছিল পেছন দিকে বাঁধা।

এদিকে বুচা শহরে বেসামরিক নাগরিক হত্যাকাণ্ডের অভিযোগ ‘সম্পূর্ণ’ অস্বীকার করেছে রাশিয়া। এক সংবাদ সম্মেলনে ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেন, বুচার ঘটনা এবং ঘটনার সময়ের সঙ্গে ইউক্রেনের দেওয়া ঘটনার বয়ানের কোনো মিল নেই। আন্তর্জাতিক নেতাদের ইউক্রেনের বয়ান অনুসারে বুচার ঘটনাকে বিচারে তাড়াহুড়া না করার আহ্বান জানাই।

তিনি বলেন, এই তথ্যটি (বুচায় ব্যাপক হত্যাকাণ্ড) অবশ্যই গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা উচিত। আমরা যা দেখলাম এবং আমাদের বিশেষজ্ঞরা ভিডিওতে করা জালিয়াতি এবং অন্যান্য মিথ্যা শনাক্ত করেছে।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/০৪ এপ্রিল ২০২২

Back to top button