ক্রিকেট

দিল্লীর হয়ে অভিষেকেই ‘উড়ন্ত’ ফিজ

মুম্বাই, ০৩ এপ্রিল – হায়দ্রাবাদ থেকে রাজস্থান হয়ে মুস্তাফিজ এবার আইপিএলে নাম লিখিয়েছেন দিল্লী ক্যাপিটালসে। দল পাল্টেছে, পাল্টেছে জার্সির রঙ। তবে চিরচেনা রূপেই আছেন মুস্তাফিজুর রহমান। দিল্লীর হয়ে অভিষেক ম্যাচ খেলতে নেমেই চিনিয়েছেন নিজের জাত। দুর্দান্ত বোলিংয়ে তুলে নিয়েছেন ৩ উইকেট।

দেশের হয়ে আফ্রিকা থেকে ওয়ানডে খেলে ফেরার পরই চলে গেছেন আইপিএলে নিজের নতুন ঠিকানা দিল্লীতে। তবে কোয়ারেন্টাইন নিয়ম মানতে খেলতে পারেননি দলের প্রথম ম্যাচ। কোয়ারেন্টাইন পিরিয়ড কাটতেই দ্বিতীয় ম্যাচেই দিল্লীর একাদশে নিজের জায়গা করে নেন কাটার মাস্টার। তার ওপর দলের আস্থার প্রতিদানও দিয়েছেন দুর্দান্তভাবেই। দলের অন্য বোলারদের সাদামাটা বোলিংয়ের পরও জরাট টাইটান্স যে ১৭১ রানের বেশি করতে পারেনি তার সম্পূর্ণ কৃতিত্বই মুস্তাফিজের।

টস জিতে বোলিং করতে নেমে দিল্লির অধিনায়ক ঋষভ পান্ত শুরুতেই বল তুলে দেন মুস্তাফিজের হাতে। অধিনায়ককে একটুও হতাশ করেননি এই টাইগার পেসার। এবারের আইপিএল আর দিল্লীর হয়ে নিজের করা তৃতীয় বলেই উইকেট তুলে নেন মুস্তাফিজ।

প্রথম দুই বলে দুই রান দেয়ার পর তৃতীয় বলে ম্যাথু ওয়েডকে উইকেটের পেছনে দাঁড়ানো পান্তের ক্যাচ বানান। ফিল্ড আম্পায়ার আউট না দিলেও রিভিউ নিয়ে ঠিকই নিজের নামের উইকেটটা জম আকরে নেনে মুস্তাফিজ। পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে আবার বোলিংয়ে ফিরে রান দেন মাত্র ৬।

মিডল ওভারগুলোতে ফিজকে আর বোলিংয়ে আনেননি প্যান্ট। নিজের সেরা অস্ত্রটাকে ডেথ ওভারের জন্য বাঁচিয়ে রেখেছিলেন দিল্লীর অধিনায়ক। মুস্তাফিজ পূর্ণ প্রতিদান দিয়েছেন অধিনায়কের সেই আস্থার প্রতিও। গুজরাটের ১৭তম ওভারে দেন মাত্র ৯ রান। আর একেবারে শেষের ওভার করতে এসে স্নায়ুচাপ ধরে রেখে মাত্র ৪ রান দিয়েই তুলে নেন ২ উইকেট।

দলের অন্য সব বোলার যেখানে ব্যর্থ সেখানে মুস্তাফিজের বোলিং ফিগার ছিলো ৪-০-২৩-৩। নিজের করা ২৪ বলের ভেতর ডটই দিয়েছেন ৭ বল। মুস্তাফিজের এমন দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের পরেও দলের ব্যাটসমানদের ব্যর্থতায় হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে দিল্লী ক্যাপিটালসকে।

১৭২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দিল্লির পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেন দলের অধিনায়ক ঋষভ পান্ত, ললিত যাদব করেন ২৫, রভম্যান পাওয়েল ২০ আর মানদ্বীপ সিংয়ের ১৮ ছাড়া বলার মতো রানই করতে পারেননি অন্য কেউ। দিনশেষে তাই ১৪ রানের পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে মুস্তফিজের দিল্লীকে। গুজরাট টাইটান্সের হয়ে ৪ ওভারে ২৮ রানে ৪ উইকেট তুলে নেয়া লকি ফার্গুসন হয়েছেন ম্যাচসেরা।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এম এস, ০৩ এপ্রিল

Back to top button