ইউরোপ

তেলের ডিপোতে হামলা শান্তি আলোচনা ব্যাহত করবে: ক্রেমলিন

মস্কো, ০১ এপ্রিল – রাশিয়ার একটি তেলের ডিপোতে ইউক্রেনের কথিত হেলিকপ্টার হামলা দুই পক্ষের মধ্যে শান্তি আলোচনাকে ব্যাহত করবে বলে জানিয়েছেন ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ।

শুক্রবার বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে পেসকভকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, এ হামলা সংঘাতে উসকানি দেবে কিনা?

এর জবাবে রুশ বার্তাসংস্থা ইন্টাফেক্সকে তিনি বলেন, ‘অবশ্যই এটা এমন কিছু নয়, যা আলোচনা অব্যাহত রাখার জন্য আরামদায়ক পরিস্থিতি তৈরি করবে বলে মনে করা যেতে পারে।’

শুক্রবার সকালে ইউক্রেন সীমান্তের কাছে বেলগোরদ শহরে রাশিয়ার একটি তেলের ডিপোতে আগুন লাগে। রাশিয়ার অভিযোগ, ইউক্রেনের হেলিকপ্টার হামলায় এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।

ইউক্রেনে সচরাচর রুশ হামলার ঘটনা ঘটলেও রাশিয়ায় পাল্টা হামলা তেমন একটা দেখা যায় না। তবে হামলায় দায় স্বীকার করেনি ইউক্রেন।

যে ডিপোতে আগুন লেগেছে, ইউক্রেন সীমান্ত থেকে তা মাত্র ৩৫ কিলোমিটার দূরে। ফটো ও ভিডিও দেখে এটা নিশ্চিত হওয়া গেছে যে, স্থানীয় সময় ভোর ৬টার দিকে এ আগুন লাগে।

বিবিসি জানিয়েছে, বেলগোরদ শহরের আঞ্চলিক গভর্নর অভিযোগ করেছেন, সামরিক হেলিকপ্টার দিয়ে ওই তেলের ডিপোতে হামলা চালিয়েছে ইউক্রেন।

গভর্নর ভিয়াচেসলভ গ্লাদকভ তার টেলিগ্রাম চ্যানেলে বলেন, ‘শুক্রবার ভোরে যে আগুন লেগেছে, তা ইউক্রেনের দুই হেলিকপ্টার হামলায় ঘটেছে।’

তিনি জানান, হামলার জেরে অন্তত দু’জন আহত হয়েছেন। তবে তাদের অবস্থা গুরুতর নয়।

গভর্নর গ্লাদকভ জানান, আগুন নেভাতে কাজ করছেন অগ্নিনির্বাপন কর্মীরা। তেলের ডিপোর আশপাশের এলাকা থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

এর দুই দিন আগে ওই এলাকার একটি অস্ত্র কারখানায় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। কারা এবং কীভাবে এ বিস্ফোরণ ঘটেছে, তা জানা যায়নি।

সূত্র : ঢাকাটাইমস
এম এস, ০১ এপ্রিল

Back to top button