জাতীয়

রোজায় হুড়োহুড়ি করে একবারে পুরো মাসের বাজার নয়

রংপুর, ৩১ মার্চ – আসন্ন পবিত্র রমজান মাসে হুড়োহুড়ি করে প্রয়োজনের অতিরিক্ত পণ্য একেবারে কিনে মজুদ করা থেকে বিরত থাকার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

বৃহস্পতিবার রংপুর পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের অডিটোরিয়ামে সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ আহ্বান জানিয়ে বলেন, রমজান ঘিরে হুড়োহুড়ি করে জনসাধারণকে এক মাসের বাজার করা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানাচ্ছি। যতটুকু প্রয়োজন, ততটুকু কেনাই ভালো। আমাদের প্রচুর সাপ্লাই রয়েছে। বাজারে যে স্টক রয়েছে, তাতে ঘাটতি হবে না। হুড়োহুড়ি করার কিছু নেই। এটি করা হলে বাজারে নিত্যপণ্যের কৃত্রিম সংকট তৈরি হবে। এতে করে কোনো কোনো অসাধু ব্যবসায়ী এর ফায়দা নিতে পারে।

টিপু মুনশি বলেন, এক কোটি মানুষকে টিসিবির ফ্যামিলি কার্ড দেওয়া হয়েছে। আমরা দুবার এক কোটি মানুষকে পণ্য দেব। যেসব জায়গা থেকে কার্ড বিতরণে অভিযোগ উঠেছে, তা তদন্ত করা হচ্ছে। আদৌ কোথাও অনিয়ম হয়েছে কি না- সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আমাদের কাছে যে রিপোর্ট আছে, নট ইভেন ওয়ান পারসেন্ট কমপ্লেইন আছে। নাইনটি নাইন পারসেন্ট পারফেক্টলি হয়েছে। তারপরও কোথাও যদি অনিয়ম থাকে, আমরা ব্যবস্থা নেব। টিসিবির পণ্যের অনিয়মে জড়িত কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না।

রমজান মাসকে সামনে রেখে ভোক্তা অধিকার থেকে শুরু করে প্রশাসনের কর্মকর্তারা বাজার মনিটরিং করছে জানিয়ে তিনি বলেন, সরকারের নির্ধারণ করে দেওয়া দামেই বাজারে সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে। ‌তেলসহ বেশকিছু পণ্যের দাম কমেছে। আমরা মূল্য বেধে দিয়েছি ১৬৮ টাকা, এখন তার চেয়েও কমে ১৬৫ টাকায় তেল বিক্রি হচ্ছে। তবে কোথাও ১৬৮ টাকার বেশিতে বিক্রি হচ্ছে না। বাজার মনিটরিং চলছে, রমজানে তৎপরতা আরও বাড়ানো হবে।

এর আগে বাণিজ্যমন্ত্রী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন।

তিনি ওই অনুষ্ঠানে বক্তব্যে বলেন, মুক্তিযুদ্ধের শুরুর মুহূর্তে পুলিশ প্রথম জীবন দিয়েছে, রক্ত দিয়েছে। পুলিশের রক্ত দিয়েই আমরা লড়াইটা শুরু করেছি। রাজারবাগে প্রথম আক্রমণ হয়েছে ২৫ মার্চ রাতে, প্রথম শহিদ হয়েছে পুলিশ।

কমিউনিটি পুলিশিং রংপুর মেট্রোপলিটন কমিটি রংপুরের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোছাদ্দেক হোসেন বাবলুর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আবদুল আলীম মাহমুদ, জেলা পুলিশ সুপার ফেরদৌস আলী চৌধুরী, রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহেমেদ, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিউর রহমান সফি, রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম রাজু, মহানগর সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্তল প্রমুখ।

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ ও কমিউনিটি পুলিশিং রংপুর মেট্রোপলিটন কমিটির যৌথ উদ্যোগে আলোচনা সভার আয়োজন করে। এ ছাড়া অনুষ্ঠানে পুলিশ প্রশাসন ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/৩১ মার্চ ২০২২

Back to top button