বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

ফাইভ-জি’র নিলাম আজ

ঢাকা, ৩১ মার্চ – ফোর-জি তরঙ্গ বাংলাদেশের মানুষের কাছে সহজলভ্য যেখানে হয়নি, সেখানে ফাইভ-জি’র তরঙ্গ (স্পেকট্রাম) নিলামে উঠানো হবে আজ। পঞ্চম প্রজন্মের এ নেটওয়ার্ক বিক্রির এ নিলাম বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) দুপুরে হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে অনুষ্ঠিত হবে। এই নিলামে সাধারণত দেশের সব মোবাইল ফোন অপারেটর অংশ নিয়ে থাকেন। নিলাম থেকে তরঙ্গ কিনে অপারেটররা ফাইভ-জি চালুর জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেবে বলে জানা গেছে।

নিলাম পরিচালনা করবে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। নিলাম অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, বিভাগের সচিব মো. খলিলুর রহমান, বিটিআরসির চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদারের।

অপরদিকে নিলামে দেশের মোবাইল অপারেটরগুলোর শীর্ষ নির্বাহী ও মাদার কোম্পানির প্রতিনিধিরা অংশ নেবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

‘রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি অকশন-২০২২’ শীর্ষক নিলামে মেগাহার্টজ তরঙ্গের প্রাথমিক মূল্য ১৫ বছরের জন্য ৬ মিলিয়ন ডলার ভিত্তি ধরার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এবারের নিলামের জন্য ২.৩, ২.৬ এবং ৩.৫ গিগাহার্টজ ব্যান্ড নির্ধারণ করা হবে। নিলাম অনুষ্ঠিত হবে ১৮টি ব্লকে। প্রতি ব্লকে থাকবে ১০ মেগাহার্টজ করে তরঙ্গ।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, আমি আশা করব এবারের নিলাম থেকে মোবাইল অপারেটররা পর্যাপ্ত তরঙ্গ কিনবে এবং মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের মানসম্মত সেবা তারা নিশ্চিত করবে। কারণ, ভোগান্তি হয় গ্রাহকদের। কম তরঙ্গে বেশি গ্রাহককে সেবা দিতে গেলে নেটওয়ার্কজনিত সমস্যা হবেই। গ্রাহকদের কষ্ট লাঘব করতে হবে বলে জানান তিনি।

অপারেটরদের বারবার সময় দেওয়ার পরও তারা পর্যাপ্ত তরঙ্গ কেনেনি বলে আক্ষেপ প্রকাশ করে মন্ত্রী বলেন, ‘ফলে গ্রাহকদের সার্ভিস কোয়ালিটি ফুলফিল হয় না। এবার এটাই মোবাইল অপারেটরদের শেষ সুযোগ। এরপরে তারা ফোর-জি তরঙ্গ কিনতে চাইলেও পারবে না। কারণ, এরপরে তরঙ্গ নিতে চাইলে ফাইভ-জি কম্প্যাটিবল তরঙ্গ নিতে হবে। ফলে এই নিলাম থেকে তারা পর্যাপ্ত তরঙ্গ কিনবেন বলে তিনি আশাবাদী বলে জানান মোস্তাফা জব্বার।

গত বছরের ১২ ডিসেম্বর দেশে প্রথমবারের মতো ফাইভ-জি চালু হয়। রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল ফোন অপারেটর টেলিটক পরীক্ষামূলকভাবে এই নেটওয়ার্ক চালু করেছিল।

সূত্র : আরটিভি
এম এস, ৩১ মার্চ

Back to top button