ক্রিকেট

হায়দরাবাদকে উড়িয়ে আইপিএলে যাত্রা শুরু রাজস্থানের

মুম্বাই, ৩০ মার্চ – সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে আইপিএলের নতুন আসরে যাত্রা শুরু করলো রাজস্থান রয়্যালস। সানজু স্যামসন-শিমরন হেটমায়ারদের ব্যাটিং তান্ডবের পর ইয়ুজভেন্দ্র চাহাল, প্রাসিদ কৃষ্ণারা দেখিয়েছেন বোলিং জাদু।

ম্যাচে আগে ব্যাট করা রাজস্থানের সংগ্রহ ছিল ৬ উইকেটে ২১০ রান। জবাবে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪৯ রানের বেশি করতে পারেনি হায়দরাবাদ। ফলে ৬১ রানের জয় পেয়েছে সানজু স্যামসনের দল। ম্যাচসেরার পুরস্কারও পেয়েছেন সানজু স্যামসন।

রাজস্থানের ছুড়ে দেওয়া বিশাল চ্যালেঞ্জ টপকানোর মিশনে শুরুতেই মুখ থুবড়ে পড়ে হায়দরাবাদ। পাওয়ার প্লের ৬ ওভারে মাত্র ১৪ রান করতে পারে তারা, হারায় ৬ উইকেট। আইপিএল ইতিহাসে এটিই পাওয়ার প্লে’তে সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড।

এর আগে ২০০৯ সালের আসরে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে পাওয়ার প্লের ছয় ওভারে ঠিক ১৪ রানই করেছিল রাজস্থান, হারিয়েছিল ৩ উইকেট। প্রায় ১৩ বছর পর সেই রেকর্ডে এবার বোলিং প্রান্তে রাজস্থান। অর্থাৎ দুইবারই জড়িয়ে থাকলো তাদের নাম।

ইনিংসের ১১তম ওভারের মধ্যে মাত্র ৩৭ রানে ৫ উইকেট হারায় হায়দরাবাদ। রাহুল ত্রিপাঠি ও নিকোলাস পুরান ফিরে যান রানের খাতা খোলার আগেই। এছাড়া কেইন উইলিয়ামসন ২, অভিষেক শর্মা ৯ ও আব্দুল সামাদ করেন ৪ রান। যা চোখরাঙানি দেয় বড় লজ্জার।

তবে সেখান থেকে এইডেন মারক্রাম ৪১ বলে ৫৭*, রোমারিও শেফার্ড ১৮ বলে ২৪ ও ওয়াশিংটন সুন্দর মাত্র ১৪ বলে ৪০ রানের সাইক্লোন ইনিংস খেলে দলকে দেড়শ ছুঁইছুঁই রানে পৌঁছে দেন। যা শুধু রাজস্থানের জয়ের ব্যবধানটাই কমিয়েছে।

রাজস্থানের পক্ষে ৩ উইকেট নিয়েছেন চাহাল। এছাড়া কৃষ্ণা ও ট্রেন্ট বোল্টের শিকার ২টি করে উইকেট।

এর আগে পুনের মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দলে সাত অভিষিক্ত নিয়ে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে যশবি জাসওয়াল ও জস বাটলারের উদ্বোধনী জুটিতে পাওয়ার প্লেতে ৫৮ রান যোগ করে রাজস্থান।

পাওয়ার প্লে শেষে সাজঘরে ফিরে যান ১৬ বলে ২০ রান করা জাসওয়াল, বাটলারের ব্যাট থেকে আসে ২৮ বলে ৩৫ রান। এরপর তৃতীয় উইকেটে অধিনায়ক সানজু স্যামসন ও দেবদূত পাডিকাল গড়েন মাত্র ৫.৫ ওভারে ৭৩ রানের জুটি।

প্রথমবারের মতো রাজস্থানের জার্সি গায়ে খেলতে নেমে ২৯ বলে ৪১ রান করেন পাডিকাল। তবে মূল ঝড়টা তোলেন অধিনায়ক সানজু। মাত্র ২৫ বলে ফিফটি করে তিনি থামেন ২৭ বলে ৩ চার ও ৫ ছয়ের মারে ৫৫ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে।

আর শেষের তাণ্ডবটা চালান ক্যারিবীয় রিক্রুট শিমরন হেটমায়ার। তার সাইক্লোন ব্যাটিংয়ে ১৬.১ ওভার থেকে ১৯.২ ওভার পর্যন্ত মাত্র ২১ বলে ৪৪ রান পায় রাজস্থান। হেটমায়ার খেলেন ২ চার ও ৩ ছয়ের মারে ১৩ বলে ৩২ রানের ইনিংস। রিয়ান পরাগ করেন ১২ রান।

হায়দরাবাদের পক্ষে দুইটি করে উইকেট নিয়েছেন উমরান মালিক ও থাঙ্গারাসুই নাটরাজন।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ৩০ মার্চ

Back to top button