নাটক

ঈদে আসছে তাদের ‘চাদের কলঙ্ক’

ঢাকা, ২৯ মার্চ – এই প্রজন্মের তরুণ অভিনেতাদের মধ্যে খায়রুল বাসার অভিনেতা হিসেবে নিজের আলাদা একটা ইমেজ তৈরী করেই ফেলেছেন প্রায়। নির্মাতাদের কাছে আস্থার একটি জায়গাও তৈরী হয়েছে। একজন অভিনেতা হিসেবে ভালো গল্পে চ্যালেঞ্জিং চরিত্রে কাজ করার ক্ষুধাটা আছে তার মধ্যে। যে কারণে তরুণ মেধাবী নির্মাতারা তাকে নিয়ে যেমন কাজ করছেন, গুণী সিনিয়র নির্মাতারাও তাকে নিয়ে কাজ করছেন।

এরইমধ্যে তরুণ মেধাবী নির্মাতা জামাল মল্লিক খায়রুল বাসারকে নিয়ে নির্মাণ করেছেন ‘চাঁদের কলঙ্ক’ নামের একটি নাটক। এতে তার সহশিল্পী হিসেবে আছেন নাজিবা বাশার ও রোদসী সিদ্দিকা। এরইমধ্যে থ্রিলারধর্মী এই নাটকটি মানিকগঞ্জের বিভিন্ন লোকেশনে দৃশ্য ধারণের কাজ শেষ হয়েছে। নাটকটি রচনা করেছেন সুস্ময় সুমন। প্রযোজনা করেছেন সাজু মুনতাসির।

খায়রুল বাসার বলেন, ‘চাঁদের কলঙ্ক একটি রহস্য গল্পের নাটক। রোদসী খুবই চমকার অভিনয় করেছে, সেই সঙ্গে নাজিবা বাশারও। দু’জনের সঙ্গে এবারই নাটকে আমার প্রথম কাজ করা। দু’জনের সঙ্গে অভিনয় আমি ভীষণভাবে উপভোগ করেছি। আর জামাল ভাইয়ের নির্দেশনায় আগেও কাজ করেছি। গল্প নির্বাচনের ক্ষেত্রে এবং নির্মাণের ক্ষেত্রে আমাদের মধ্যে চমৎকার বোঝাপড়ার সৃষ্টি হয়েছে। সুস্ময় সুমন ভাই এতো চমৎকার থ্রিলারধর্মী গল্প লিখতে পারেন এটা আমার ভাবনায় ছিলোনা। আমি খুব আশাবাদী কাজটি নিয়ে।’

রোদসী সিদ্দিকা বলেন, ‘সত্যি বলতে কী চাঁদের কলঙ্ক নাটকটির গল্পটাই আসলে অন্যরকম। যে কারণে কাজটি করে ভালো লেগেছে। পুরো ইউনিট অনেক শ্রম দিয়ে কাজটি ভালো করার চেষ্টায় মত্ত ছিলো। জামাল ভাই নি:সন্দেহে অনেক পরিশ্রমী এবং মেধাবী নির্মাতা।’

নির্মাতা জানান, আসছে ঈদে আরটিভিতে প্রচার হবে নাটকটি। এদিকে এরইমধ্যে খায়রুল বাসার, বর্তমানে আগামী ঈদের কাজগুলো নিয়েই এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন। তিনি তার নিজের পরিকল্পনা মতোই আগামীর পথে এগিয়ে যাবার চেষ্টা করছেন।

এরইমধ্যে খায়রুল বাসার ও রোদসী তানিম রহমান অংশুর পরিচালনায় ‘তীরন্দাজ’ ওয়েব সিরিজে কাজ করেছেন। মিডিয়াতে রোদসীর প্রথম কাজ ছিলো শর্টফিল্ম ‘কী একটা অবস্থা’। জামাল মল্লিকেরই নির্দেশনায় আগামী ঈদের জন্য তিনি ‘পড়শী যদি আমায় ছুঁতো’ নাটকেও কাজ করেছেন।

এন এইচ, ২৯ মার্চ

Back to top button