শিক্ষা

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে ঢাবি ছাত্রকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

ঢাকা, ২৭ মার্চ – ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আশিকুর রহমান নামে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের এক চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীকে ডিটেকটিভ ব্রাঞ্চ (ডিবি) পরিচয় দিয়ে নিজ বাসা থেকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে তাকে আজিমপুরের বাসা থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে জানা গেছে। আশিকের বিভাগ ও তার বন্ধুরা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আশিকুর রহমানের সঙ্গে একই বাসাতে থাকেন অ্যাকাউন্টিং বিভাগের ২০১৯-২০ সেশনের শিক্ষার্থী মুহসিন।

তিনি বলেন, শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে আমাদের বাসায় ডিবি পুলিশের কয়েকজন লোক আসে। ঢুকেই আমাদেরকে বলেন, ইলেকট্রিক ডিভাইসগুলো দিয়ে দেন। দিয়ে দেওয়ার পর তারা আমাদেরকে হ্যান্ডকাফ পরান। আশিক ভাইয়ের ফোন অনেকক্ষণ চেক করে তারা বলেন, আপনাদের পাশের বাসায় ঝামেলা হচ্ছে। কী ঝামেলা তা আর তারা বলেননি। এরপর তারা ভাইকে বললেন যে, তাকে মিন্টু রোডে ডিবি কার্যালয়ে যেতে হবে। ওনাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে। সমস্যা না হলে ছেড়ে দেবে। সঙ্গে পুলিশও ছিল, আনসারও ছিল।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের স্টুডেন্ট কো-অর্ডিনেটর ড. মো. আব্দুল মান্নান বলেন, ‘ডিবি পরিচয়ে তাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার পর আমরা মিন্টু রোডে ডিবির কার্যালয়ে যাই। কিন্তু তাকে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়েছে কি না আমাদেরকে জানানো হয়নি। সেখানকার এক ডিবির সহকারী কমিশনারকে জিজ্ঞেস করি। তিনি বলেন যে, তিনি কিছু জানেন না। যদি কাউকে আটক করা হয় তাহলে পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হবে। এখন পর্যন্ত তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়নি। তাছাড়া তাকে শাহবাগ বা লালবাগ থানায়ও নিয়ে যাওয়া হয়নি। এখন পর্যন্ত আমরা কিছুই জানি না।’

বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. রুহুল আমিন বলেন, ডিবি পরিচয়ে তুলে নিয়ে গেলে কোথায় খোঁজ নিতে হয়, আমার জানা নাই। আমি খুবই দুশ্চিন্তার মধ্যে আছি। আমি তার পরিবারকে কী বলব, শিক্ষার্থীদের কী বলব, কলিগদের কী বলব। আমি আবার ছুটিতে আছি।

এ বিষয়ে লালবাগ থানার ওসি এম এম মুর্শেদ বলেন, আশিকুর রহমান নামের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো শিক্ষার্থীকে থানায় নিয়ে আসা হয়নি।

শাহবাগ থানার ওসি মওদুত হাওলাদারও তার থানায়ও আশিককে নেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, বিষয়টি আমরা বিভিন্ন জায়গা থেকে জানার চেষ্টা করছি। জানার পর পরবর্তী ব্যবস্থা আমরা নেব।

এদিকে আশিকুরের দ্রুত মুক্তি চেয়ে রোববার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্করে্যর পাদদেশে মানববন্ধন করেছে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/২৭ মার্চ ২০২২

Back to top button