চুয়াডাঙ্গা

টিসিবির কার্ড বিতরণে অর্থ আদায়ের অভিযোগ

চুয়াডাঙ্গা, ২৪ মার্চ – চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) কার্ড করে দেওয়ার নামে নিম্ন আয়ের মানুষের কাছ থেকে ১০০ টাকা করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত মজিবর রহমানের বাড়ি দামুড়হুদা উপজেলার আরামডাঙ্গা গ্রামে।

ভুক্তভোগী আরামডাঙ্গা গ্রামের দিনমজুর জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমার টিসিবির পণ্য কেনার কার্ড করে দেওয়ার নাম করে ১০০ টাকা নিয়েছে মজিবর। টাকা নেওয়ার সময় আমার ছবিও নিয়ে যায় সে। আমার কাছে কোনো টাকা ছিল না। খুব কষ্টে অন্যের থেকে ধার করে আমি তাকে ১০০ টাকা দিই। পরে জানতে পারলাম কার্ড করতে কোনো টাকা লাগে না।

একই গ্রামের দিনমজুর মহাসীন আলী বলেন, কম দামে টিসিবির মালামাল পাওয়া যাবে এমন প্রলোভন দেখিয়ে কার্ড করে দেবে বলে আমার কাছ থেকে ১০০ টাকা নেয় মজিবর। সে বিল্লাল মেম্বারের লোক।

একই অভিযোগ আবু সুফিয়ানসহ এলাকার আরও অনেকের।

কার্ড করে দেওয়ার নামে টাকা নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে মজিবর রহমান বলেন, আমি গরিব মানুষ, বিল্লাল মেম্বারের সঙ্গে থাকি। দিনমজুরের কাজ করে খাই। তাদের কাজ করে দিতে হলে আমার কাজে অনুপস্থিত হতে হয়। তাই তাদের কাছ থেকে ১০০ টাকা করে নিয়েছি।

তবে কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড সদস্য আরামডাঙ্গা গ্রামের বিল্লাল হোসেন বলেন, আমি টাকা নেওয়ার বিষয়ে কিছুই জানি না।

কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল করিম বিশ্বাস জানান, কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নে ১ হাজার ৩৭৬ জন উপকারভোগীর তালিকা তৈরি করে কার্ডের মাধ্যমে নির্দিষ্ট ব্যক্তিদের কাছে টিসিবির পণ্য বিক্রি করা হয়েছে। টিসিবির পণ্য বিক্রির জন্য ক্রেতার তালিকা তৈরিতে অর্থ আদায়ের কোনো সুযোগ নেই। কেউ অবৈধভাবে অর্থ আদায় করলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাছলিমা আক্তার জানান, ঘটনাটি শুনেছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখতে উপজেলা সহকারী কমিশনারকে (ভূমি) বলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ঘটনাটি তদন্ত করতে যাবেন তিনি।

সূত্র : জাগো নিউজ
এম এস, ২৪ মার্চ

Back to top button