ক্রিকেট

সাকিব পুরো সিরিজের জন্য ‘অ্যাভেইলেবল’: তামিম

কেপ টাউন, ১৭ মার্চ – শারীরিক ও মানসিক অবসাদের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকে বিশ্রাম চেয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। এক সপ্তাহের নানা নাটকের পর অবশ্য ঠিকই তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার বিমানে ওঠেন। দলের সঙ্গে যোগ দিয়ে নিয়মিত অনুশীলন করেছেন। এখন ম্যাচ খেলার জন্য মুখিয়ে আছেন।

মিরপুরে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান জানিয়েছিলেন, দক্ষিণ আফ্রিকায় সাকিব এক দুই ম্যাচ বিশ্রামেও থাকতে পারেন। সেই ম্যাচগুলোতে টিম ম্যানেজমেন্ট ঝালিয়ে নিতে পারে অন্য কাউকে।

তবে এমন কোনো বার্তা পৌঁছায়নি ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালের কাছে। সেঞ্চুরিয়নে শুক্রবার প্রথম ওয়ানডেতে মাঠে নামতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ম্যাচ শুরুর আগে তামিমকে সাকিব সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়েছিল। অধিনায়ক জানালেন, বেশ ভালো মেজাজে আছেন সাকিব। প্রথম ওয়ানডে খেলতে এবং অন্য সবার মতো ভালো ফল পেতে মুখিয়ে আছেন।

তামিম বলেছেন, ‘আমার কাছে এমন (সাকিবের বিশ্রাম) কোনো বার্তা নেই যেখানে আমাকে বলা হয়েছে ওকে এক-দুইটা ম্যাচ বিশ্রাম দিতে হবে বা এরকম কিছু। আমি জানি সে আমাদের দলের সঙ্গে কাছে এবং পুরো সিরিজের জন্য অ্যাভেইলেবল। তার সঙ্গে আমার স্বাভাবিক ক্রিকেট নিয়েই আলাপ হয়েছে। কালকের ম্যাচটি খেলতে মুখিয়ে আছে। অন্য সবার মতো সেও চায় আমরা যেন সবাই মিলে ভালো করি। তাছাড়া অন্য কোনো তথ্য আমার কাছে নেই।’

আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন ওয়ানডেতে সাকিব রান করেছেন ৬০। উইকেট পেয়েছেন ৫টি। দুই টি-টোয়েন্টিতে রান মাত্র ১৪। উইকেট ২টি। ব্যাট-বল হাতে সময়টা ভালো যাচ্ছিল না সাকিবের। ২২ গজে সময় কাটিয়ে চেষ্টা করছেন নিজেকে স্বরূপে ফেরানোর। কিন্তু ব্যর্থ হচ্ছেন বারবার। এজন্য মনোবলও হারিয়ে ফেলেন। লড়াকু ভাবটাও নেই। শারীরিক ভাষাতেও রয়েছে জড়তা। এজন্য বিরতি নিয়ে ক্রিকেট থেকে দূরে থাকতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সেই সুযোগটি পাননি বাঁহাতি স্পিন অলরাউন্ডার।

অবশ্য দেশ ছাড়ার আগে জানিয়েছিলেন, স্বস্তি নিয়েই যাচ্ছেন। বিমানবন্দরে তিনি বলেছিলেন, ‘অনেকটা স্বস্তি নিয়ে যাচ্ছি। দলের সঙ্গে থাকাটা সব সময়ই ভালো ব্যাপার, মজার ব্যাপার। শেষ ১৫ বছর ধরে আছি। সামনেও হয়তো থাকতে পারলে ভালো লাগবে। দলের সঙ্গে থাকাটাই সব সময় আনন্দের ব্যাপার। আশা করি দলের জন্য সবাই একটা ভালো ফল আনতে পারব।’

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ১৭ মার্চ

Back to top button