ইউরোপ

কৃষ্ণসাগরে পানামার পতাকাবাহী তিনটি জাহাজে মিসাইল হামলা

মস্কো, ১৭ মার্চ – কৃষ্ণসাগরে পানামার পতাকাবাহী তিনটি জাহাজে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে রাশিয়া।

বুধবার পানামার সামুদ্রিক কর্তৃপক্ষ এ তথ্য জানিয়েছে। খবর রয়টার্সের।

পানামার সামুদ্রিক কর্তৃপক্ষ বলেছে, গত মাসে ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন শুরু হওয়ার পর কৃষ্ণসাগরে পানামার ওই তিনটি জাহাজে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হেনেছে।

এক বিবৃতিতে পানামার সামুদ্রিক কর্তৃপক্ষ আরও বলছে, রুশ ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানার পর একটি জাহাজ ডুবে গেছে। তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। অন্য দুটি জাহাজ ক্ষতিগ্রস্ত হলেও কৃষ্ণসাগরে চলাচল করেছে।

পানামা মেরিটাইম অথরিটির (এএমপি) প্রশাসক নোরিয়েল আরাউজ বলেন, আমাদের তিনটি জাহাজে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হেনেছে। জাহাজের ক্রুদের সবাই নিরাপদ আছেন। আমাদের জাহাজের ক্ষতি হয়েছে।

রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত তিন জাহাজ হলো— নামুরা কুইন, লর্ড নেলসন ও হেল্ট। তবে এসব জাহাজ কবে আক্রান্ত হয়েছিল, সে বিষয়ে নির্দিষ্ট করে কিছু জানায়নি এএমপি।

নোরিয়েল আরাউজ বলেন, অন্যান্য দেশের পতাকাবাহী অন্তত ১০টি জাহাজ এখনও কৃষ্ণসাগরে ভাসছে। রাশিয়ার নৌবাহিনী ওই এলাকা ছাড়তে জাহাজগুলোকে বাধা দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এএমপির মতে, বিশ্বে পানামার পতাকাবাহী জাহাজের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। আট হাজারের বেশি সামুদ্রিক জাহাজ রয়েছে পানামার।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/১৭ মার্চ ২০২২

Back to top button