উত্তর আমেরিকা

ইউক্রেনকে ১০০টি ‘কিলার ড্রোন’ দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

ওয়াশিংটন, ১৭ মার্চ – ইউক্রেনে বড় ধরনের সামরিক সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। বুধবার বাইডেন প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এরই অংশ হিসেবে ইউক্রেনকে তারা ১০০টি ‘কিলার ড্রোন’ দিতে পারে।

কিলার ড্রোন এমন এক ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র, যা বেশ কয়েক মাইল দূর থেকে রুশ বাহিনীর লক্ষ্যে নির্ভূলভাবে আঘাত হানতে সক্ষম।

মার্কিন দুই কংগ্রেশনাল কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এনবিসি নিউজ এ খবর জানিয়েছে।

হোয়াইট হাউসের প্রকাশিত তালিকায় ‘১০০ ট্যাকটিক্যাল আনমেনেড অ্যারিয়াল সিস্টেমস’ দেয়া হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

এনবিসি নিউজ জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের এ পদক্ষেপ এখনও বিবেচনাধীন।

যুক্তরাষ্ট্রে তৈরি এ মারণাস্ত্রের দুটি ধরন রয়েছে। একটি সুইচব্লেড-৩০০ এবং অপরটি সুইচব্লেড-৬০০।

ওয়াশিংটনের উপকণ্ঠে এরোভাইরোমেন্ট কোম্পানির প্রস্তুতকৃত এ অস্ত্রগুলো যুক্তরাষ্ট্রের স্পেশাল অপারেশন কমান্ডের কাছে বিক্রি করা হয়েছিল।

সুইচব্ল্যাড-৩০০ কে প্রস্তুত করা হয়েছে ব্যাক্তি বিশেষের ওপর আঘাত হানার জন্য এবং সুইচব্ল্যাড-৬০০ প্রস্তুত করা হয়েছে ট্যাঙ্ক ও সশস্ত্র যান ধ্বংস করার জন্য।

মার্কিন কংগ্রেশনাল কর্মকর্তারা এটা পরিষ্কার করেননি যে, ইউক্রেনকে কোন ধরনের ড্রোন সরবরাহ করা হবে; নাকি উভয় ধরনের ড্রোনই দেয়া হবে।

এরোভাইরোমেন্ট কোম্পানি জানিয়েছে, তারা ইউক্রেনের জনগণের পাশে রয়েছে।

নিজেদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে কোম্পানিটি লিখেছে, ‘আমরা আমাদের মিত্রদের এবং সার্বভৌম দেশগুলোর নিজ ভূখণ্ডকে রক্ষার লড়াইয়ে পাশে আছি।’

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘এরোভাইরোমেন্ট ইউক্রেনের জনগন ও ন্যাটোর পাশে রয়েছে।’

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/১৭ মার্চ ২০২২

Back to top button