ইউরোপ

মারিওপোলে ২১৮৭ বেসামরিক নাগরিক নিহত

কিয়েভ, ১৪ মার্চ – ইউক্রেনে চলমান রুশ আগ্রাসনে ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে ইউক্রেনের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের শহর মারিওপোল। এখন পর্যন্ত শহরটিতে ২ হাজার ১৮৭ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন বলে জানানো মারিওপোল সিটি কাউন্সিলের পক্ষ থেকে।

গণমাধ্যম এক প্রতিবেদনে জানা যায়, মারিওপোল দখলের জন্য ক্রমাগত ধ্বংসাত্মক হামলা চালিয়েই যাচ্ছে রুশ বাহিনী। বিগত ২৪ ঘণ্টার ভেতরেও শহরটিতে অন্ততপক্ষে ২২টি বোমা হামলা চালিয়েছে পুতিন বাহিনী।

মারিওপোল সিটি কাউন্সিলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ বাহিনীর সামরিক অভিযান শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত মারিওপোলে ২ হাজার ১৮৭ জন বাসিন্দাকে প্রাণ হারিয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টার ভেতরেও শহরটিতে কম করে হলেও ২২টি বোমা হামলা চালানো হয়েছে। এছাড়া গত প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে প্রয়োজনীয় পরিষেবা ও সরবরাহও বন্ধ করে রাখা হয়েছে রুশ বাহিনীর দ্বারা অবরুদ্ধ এই শহরটিতে।

এদিকে জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক হাইকমিশনার (ইউএনএইচসিআর) জানিয়েছেন, রুশ বাহিনীর সামরিক অভিযানের পর থেকে এখন পর্যন্ত ২৬ লাখ ৯৮ হাজার ২৮০ জন ইউক্রেনীয় নিজেদের ঘরবাড়ি ছেড়ে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় নিয়েছেন প্রতিবেশী দেশগুলোতে।

জাতিসংঘের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ইউক্রেনে যুদ্ধের কারণে প্রায় ৪০ লাখ মানুষ ঘর ছাড়া হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তবে ইউএনএইচসিআরের মতে আরও বাড়তে পারে ঘরছাড়া মানুষের সংখ্যা।

অন্যদিকে ইউক্রেনের শরণার্থী বিষয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) দুর্যোগ ব্যবস্থাপনাবিষয়ক কমিশনার জানিয়েছেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের ফলে প্রায় ৭০ লাখ ইউক্রেনীয় ঘরছাড়া হতে পারে। ইউরোপে দীর্ঘ সময়ের জন্য সর্বোচ্চ মানবিক সংকট তৈরি হতে পারে বলেও জানান তিনি।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নির্দেশের পরই ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রুশ সৈন্যরা। এখন পর্যন্ত দুই দেশের ভেতর চলমান যুদ্ধে ইউক্রেনের ১৩০০ এবং রুশ বাহিনীর ১২ হাজার সেনা নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে ইউক্রেন। অন্যদিকে রাশিয়া জানিয়েছে, যুদ্ধে তাদের প্রায় ৫০০ এবং ইউক্রেনের আড়াই হাজারের বেশি সেনা নিহত হয়েছেন।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ১৪ মার্চ

Back to top button