জাতীয়

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে এ বছরই বড় কিছু হবে, বললেন চীনা রাষ্ট্রদূত

ঢাকা, ১৩ মার্চ – রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে চীন সহায়তা করছে জানিয়ে ঢাকায় নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিং বলেছেন, কিছু অগ্রগতি হয়েছে কিন্তু এখন পর্যন্ত প্রত্যাবাসন শুরু করা যায়নি। আমরা আশা করি, এ বছর বড় কিছু হবে।

রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁওয়ে রোববার চীনা দূতাবাস আয়োজিত ‘স্প্রিং ডায়ালগ উইথ চায়না’ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

এ বছর বড় কী হবে জানতে চাইলে রাষ্ট্রদূত বলেন, এর আগে দুইবার প্রত্যাবাসন চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। আমরা ঠিক করেছি দৃঢ় কোনো পদক্ষেপ না হলে আমরা কোনো তথ্য প্রকাশ করব না।

যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, অস্ট্রেলিয়া এবং জাপানের সমন্বয়ে গঠিত কোয়াড প্রসঙ্গে চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, আমার মনে হয় না বাংলাদেশ কোয়াডে যোগ দেবে; এর সামান্যতম সম্ভাবনাও আছে। কারণ বাংলাদেশ সরকার পরিষ্কারভাবে বলেছে- তারা এমন কোনো গ্রুপে যোগ দেবে না, যেটি সামরিক বা নিরাপত্তাসংক্রান্ত। কিন্তু আমরা সবাই জানি, কোয়াড হচ্ছে সামরিক বা নিরাপত্তা সংক্রান্ত গ্রুপ।

ইউক্রেন প্রসঙ্গে চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, রাশিয়া ও ইউক্রেন উভয়েই আমাদের বন্ধু। উভয়কে বলব আলোচনায় বসতে হবে, সমাধান করতে হবে।

আবেগ নয়; ঠাণ্ডা মাথায় রাশিয়া-ইউক্রেন সমস্যার সমাধান করতে হবে জানিয়ে লি জিমিং বলেন, রাশিয়া ও ইউক্রেন চাইলে আলোচনায় সহায়তা করতে পারে চীন। ইউক্রেনকে প্রথমে দুশ্চিন্তা কমিয়ে মানবিক সহায়তা বৃদ্ধি করতে হবে। অনুসন্ধান করতে হবে কেন এই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

উইঘুরে মুসলিম নির্যাতনের অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, উইগুরে মুসলিম নির্যাতনের ঘটনা বলে পশ্চিমারা অপপ্রচার চালিয়ে আসছে। চীন উইঘুর ইস্যুতে জাতিসংঘের তদন্ত উদ্যোগকে স্বাগত জানায়।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/১৩ মার্চ ২০২২

Back to top button