বলিউড

শারীরিক কটাক্ষের কড়া জবাব দিলেন সায়ন্তনী

মুম্বাই, ১৩ মার্চ – শরীর নিয়ে কটাক্ষ করা নতুন ঘটনা নয়। বিশেষ করে শোবিজ অঙ্গনের তারকাদের এমন ঘটনার শিকার হতে হয়। তাদের কেউ শরীরের গড়ন নিয়ে, কেউ ওজন নিয়ে আবার কেউবা গায়ের রং নিয়ে কটাক্ষের মুখে পড়েন। শারীরিক কটাক্ষের বিরুদ্ধে ফের সরব হয়েছেন অভিনেত্রী সায়ন্তনী ঘোষ।

টালিউড ও বলিউড দুই ইন্ডাস্ট্রিতেই কাজ করেছেন সায়ন্তনী। এর আগে নিজের বড় স্তনের জন্য সমালোচনার মুখোমুখি পড়তে হয়েছিলো এই অভিনেত্রীকে। তবে অভিনয়ে পা রাখার পর থেকে নয়, বরং ছোটবেলা থেকেই শারীরিক কটাক্ষের শিকার হয়েছেন- সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

সায়ন্তনী বলেন, ”আমি টিনেজ থেকেই এই ধরনের কথা শুনে আসছি। একবার এক মহিলা আমায় বলেছিল, ‘তোমার বুক তো সমান নয়, অনেক বড়। নিশ্চয় তুমি অনেক সেক্স করেছ!’ আসলে অনেকেই ভাবেন স্তন বড় মানেই অনেক সেক্স করেছে। আমি তখন বুঝতাম না তারা ঠিক কী বলতে চাইছেন। কারণ আমি তখনও ভার্জিন ছিলাম। মানুষের এসব কথায় ভয় পেতাম। নিজের অজান্তেই এসব কথা মনে একটা ক্ষত তৈরি করে।”

তিনি যোগ করেন, ‘অনেক পুরুষই আছেন যারা মেয়েদের স্তনের মাপ জানতে চান। এমনকি বাদ যান না নারীরাও! স্তন ছোট হোক বা বড়, সেটি নিয়ে চলে বডি শেমিং।’

নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে সবাইকে হুঁশিয়ারি দিয়ে এই অভিনেত্রীর আহ্বান, ‘এক সময় আমিও চুপ থেকেছি, যখন কোনও পুরুষ আমার স্তনের দিকে তাকিয়ে থেকেছে। কিন্তু অনেক হয়েছে। আমার মনে হয় মেয়েদের নিজেদের ভালোবাসার সময় এসেছে। বডি শেমিং করলে উচিত জবাব দিন, তা ছেলে হোক বা মেয়ে।’

প্রসঙ্গত, ২০০৬ সালে শোবিজে যাত্রা শুরু করেন সায়ন্তনী ঘোষ৷ ‘কুমকুম এক প্যায়ারা সা বন্ধন’-এ নজর কাড়েন তিনি৷ এরপর ‘নাগিন’, ‘বনু ম্যায় তেরি দুলহান’, ‘মহাভারত’ ধারাবাহিকেও দেখা গেছে তাকে৷

এম এস, ১৩ মার্চ

Back to top button