ইউরোপ

কিয়েভে তীব্র লড়াই, একদিনেই ৬০০ রুশ সেনার আত্মসমর্পণের দাবি

কিয়েভ, ১৩ মার্চ – ইউক্রেনে অভিযান শুরুর পর থেকেই রাজধানী কিয়েভ দখল করার জন্য ব্যাপক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে রুশ সেনারা। বিশেষ করে গত কয়েক দিন ধরে রুশ সেনাদের সাথে ইউক্রেন সৈন্যদের তীব্র লড়াই চলছে। যেকোনো মুহূর্তে রুশ বাহিনী শহরটিতে ব্যাপক হামলা শুরু করতে পারে বলে দাবি ইউক্রেন সেনা অধিনায়কদের। তবে প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বলছেন, কিয়েভ দখলের চেষ্টায় রুশ সেনাদের বেশি ক্ষতি হচ্ছে।

শনিবার (১২ মার্চ) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ইউক্রেন প্রেসিডেন্ট দাবি করেছেন, গত কয়েক দশকের মধ্যে রাশিয়া এত বেশি সামরিক ক্ষতির মুখে পড়েনি। রাশিয়ার ৩১টি সাঁজোয়া ব্যাটালিয়নের আর লড়াই করার ক্ষমতাই নেই।

জেলেনস্কির আরও দাবি করেন, ইউক্রেন সেনাদের কাছে শুক্রবারই ৫০০ থেকে ৬০০ রুশ সেনা আত্মসমর্পণ করেছে। রাশিয়ার বিরুদ্ধে লড়তে গিয়ে যুদ্ধের প্রথম ১৭ দিনে ১ হাজার ৩০০ ইউক্রেনীয় সেনা নিহত হয়েছে।

তবে বিবিসিসহ আরও আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, তারা ইউক্রেন প্রেসিডেন্টের এই তথ্যের সত্যতা তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত করতে পারেনি।

উল্লেখ্য, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের সামরিক অভিযান ঘোষণার কয়েক মিনিট পরেই ইউক্রেনে বোমা ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু করে রুশ সেনারা। এরপর থেকে ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ চলছে। ইতোমধ্যে ইউক্রেন ছেড়েছেন ২৫ লাখের বেশি মানুষ। এ ছাড়া যুদ্ধে ইউক্রেনের ১৩শ’ সেনা নিহত এবং রাশিয়ার ১২ হাজার সৈন্য নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে ইউক্রেন। তবে রাশিয়া বলছে, যুদ্ধে তাদের প্রায় ৫০০ সৈন্য নিহত এবং ইউক্রেনের আড়াই হাজারের বেশি সেনা নিহত হয়েছেন।

এ ছাড়া জাতিসংঘ জানিয়েছে, রুশ অভিযানে ইউক্রেনে ৫৬৪ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে ৪১ শিশু রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র বলছে, ইউক্রেনে আনুমানিক ৫ থেকে ৬ হাজার রুশ সেনা নিহত হয়েছে।

সূত্র : আরটিভি
এম এস, ১৩ মার্চ

Back to top button