ইউরোপ

ইউক্রেন নিয়ে কথা বলার সময় হাসিতে ফেটে পড়লেন কমলা হ্যারিস

ওয়ারস, ১২ মার্চ – ইউক্রেনের শরণার্থীদের যুক্তরাষ্ট্র নেবে কিনা-এমন প্রশ্নে হাসিতে ফেটে পড়েন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস। এমন অসংবেদনশীল আচরণের কারণে তীব্র সমালোচনার শিকার হয়েছেন তিনি।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমিরি জেলেনস্কির সাবেক প্রেস সচিব সমালোচনা করে বলেন, কমলা যদি কখনও রাষ্ট্রপতি হন তবে তা হবে একটি ‘দুঃখজনক’ ঘটনা।

পোল্যান্ডের রাজধানী ওয়ারসতে বৃহস্পতিবার দেশটির প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেজ ডুদার সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এই ঘটনা ঘটে। খবর মেট্রোর।

সংবাদ সম্মেলন চলাকালে এক সাংবাদিক কমলা হ্যারিসকে জিজ্ঞাসা করেন, যুক্তরাষ্ট্র ইউক্রেনীয় শরণার্থী গ্রহণ করবে কী না। প্রেসিডেন্ট ডুদাকেও এ সময় প্রশ্ন করা হয়, তিনি যুক্তরাষ্ট্রকে আরও শরণার্থীকে গ্রহণ করতে বলবেন কী না?

উত্তর দেওয়ার আগে হ্যারিস পোল্যান্ডের প্রেসিডেন্টের দিকে তাকিয়ে দেখেন তিনি কোনো প্রতিক্রিয়া জানাতে চান কি না। এর পর সামনের দিকে তাকিয়ে উত্তর দেন ‘বিপদের বন্ধুই প্রকৃত বন্ধু’। তবে এই উত্তর দেওয়ার আগে হাসিতে ফেটে পড়েন তিনি।

এর পর পোল্যান্ডের প্রেসিডেন্টও জানান, ইউক্রেনীয় শরণার্থীদের নেওয়ার প্রক্রিয়া আরও দ্রুত করার জন্য হ্যারিসের প্রতি আহ্বান জানাবেন তিনি।

এদিকে, ইউক্রেনের শরণার্থীর মতো একটি মানবিক ইস্যুতে এভাবে হাসির জন্য নেটিজেনরা কমলা হ্যারিসের তীব্র সমালোচনা করেছেন।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/১২ মার্চ ২০২২

Back to top button