ইউরোপ

বিজয়ের পথে ইউক্রেন: জেলেনস্কি

কিয়েভ, ১২ মার্চ – রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে বিজয়ের পথে রয়েছে বলে দাবি করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

জানা গেছে শুক্রবার টিভিতে দেয়া ভাষণের সময় তিনি এমন দাবি করেন। তবে কতদিন পর্যন্ত এ লড়াই চলবে, সে বিষয়ে কোনো ধারণা তার এখনও নেই।

জেলেনস্কি বলেন, ইউক্রেনীয় ভূখণ্ডকে মুক্ত করতে আমাদের এখনও কত সময় লাগতে পারে সেটা বলা অসম্ভব। কিন্তু আমরা বলতে পারি এটা আমরা করবই। ইতোমধ্যে আমরা একটি কৌশলগত মোড়ে উপনীত হয়েছি। এসময় তিনি রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞার চাপ আরও বাড়াতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান।

অন্যদিকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিরি পুতিন দেশটির নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে ইউক্রেনীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য বিদেশি স্বেচ্ছাসেবকদের আহ্বান জানিয়েছেন। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই শইগু বলেছেন,রাশিয়া সমর্থিত বাহিনীর পাশাপাশি লড়তে মধ্যপ্রাচ্যে ১৬,০০০ স্বেচ্ছাসেবী আছে। এসময় এই স্বেচ্ছাসেবীদের মধ্যে দক্ষ সিরিয় যোদ্ধারা থাকতে পারে, বলছেন মার্কিন কর্মকর্তারা।

বিবিসি-র খবরে বলা হয়, ইউক্রেইনের পক্ষেও এখন কিছু ভাড়াটে যোদ্ধা আসতে শুরু করেছে। কিছু মার্কিন ও ব্রিটিশ সাবেক সেনা ইউক্রেইনে যুদ্ধ করতে আসছে বলে শোনা যাচ্ছে।

এর আগে বিবিসির একটি প্রতিবেদনে জানানো হয় শুক্রবার ইউক্রেইনে ‘সর্বাত্মক হামলার’ তৃতীয় সপ্তাহে এসে আক্রমণের তালিকায় কয়েকটি নতুন শহরকে যুক্ত করেছে রাশিয়া। উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর লুটস্কের একটি বিমানক্ষেত্র ও একটি জেট ইঞ্জিন কারাখানায় হামলা চালায় তারা। ইউক্রেইনের মধ্যপূর্বাঞ্চলীয় শক্তিকেন্দ্র নিপ্রোতে বিমান হামলায় একজন নিহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

এছাড়া দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর ইভানো-ফাঙ্কিভস্ক শহরে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। এর পাশাপাশি অবরুদ্ধ বন্দরনগরী মারিওপোলের উত্তরে কৌশলগত ভাবে গুরুত্বপূর্ণ শহর ভলনোবাখার নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে বলে দাবি করেছে রাশিয়া।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ১২ মার্চ

Back to top button