জাতীয়

সত্যের জয় অনিবার্য, ভয়ের কারণ নেই : গয়েশ্বর চন্দ্র রায়

ঢাকা, ১১ মার্চ – বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, সত্যের জয় অনিবার্য, ভয়ের কোনো কারণ নেই। গণতন্ত্র, স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষা করা আমাদের দায়িত্ব। আমরা বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কর্মী, যে দলের জন্ম একজন সৈনিকের হাতেই। যুদ্ধই আমাদের ধর্ম, যুদ্ধ করেই গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করবো।

শুক্রবার বগুড়া জেলা বিএনপির সদর উপজেলা বিএনপির দ্বি-বার্ষিক কাউন্সিলের প্রথম অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সম্মেলনের সফলতা কামনা করে নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে জাতীয় সঙ্গীত ও দলীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্যদিয়ে দলীয় প্রতাকা উত্তোলন ও শান্তির পায়রা উড়িয়ে সম্মেলনের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করে গয়েশ্বর।

বগুড়া সদর বিএনপির এই সম্মেলনে গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের নেতৃত্বে সাংগঠনিক সাত বিভাগের সাতজন সাংগঠনিক ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অংশ নেন।

এসব নেতাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আজকের এই সম্মেলনে সবার আস্থা জন্মেছে যে, ভোট দিতে পারবো, সে কারণে সবাই এসেছেন। জাতীয় নির্বাচনেও মানুষের মধ্যে ভোটাধিকারের আস্থা ফেরাতে হবে। আজকে এই সম্মেলন গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার একটি মডেল। এখানে উপস্থিত বিভিন্ন বিভাগ থেকে আমন্ত্রিত সাংগঠনিক সম্পাদকরা আগামী দিনে এই গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া অনুসরণ করে কমিটি গঠন করবেন বলে আশা করি।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে গয়েশ্বর আরও বলেন, এখন স্বপ্ন দেখার বা প্রতিশ্রুতি দেয়ার সময় নয়। এখন বাস্তবায়ন করার সময়। এই সরকারকে ক্ষমতা থেকে নামিয়ে তার প্রমাণ দিতে হবে। হাত তুলে জনগণকে দেখাতে হবে আমরা জিয়ার সৈনিক, খালেদা জিয়ার সৈনিক- আমরা একটা ফ্যাসিবাদী সরকারকে নামিয়েছি।

সোলায়মান আলীর সভাপতিত্বে সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম, ডা. সাখাওয়াত হাসান জীবন, মোস্তাক মিয়া, বিলকিস জাহান শিরীন, শামা ওবায়েদ, অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ ও ওবায়দুর রহমান চন্দন। এছাড়া বিএনপি নেতা হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, জিএম সিরাজ এমপি, মোশাররফ হোসেন এমপি, রেজাউল করিম বাদশাসহ আরও অনেকেই বক্তব্য রাখেন।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ১১ মার্চ

Back to top button