ক্রিকেট

তিন দলে ভাগ হয়ে দেশ ছাড়ছেন তামিমরা

ঢাকা, ১১ মার্চ – দক্ষিণ আফ্রিকার উদ্দেশে ঘণ্টাখানেক পর বাংলাদেশ ছাড়ছে জাতীয় ক্রিকেট দল। তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টেস্ট খেলবে দুই দল। বিসিবি এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, তিনটি আলাদা দলে ভাগ হয়ে শুক্রবার সকাল থেকে শনিবার সকালের মধ্যে তামিম-মুশফিকরা আফ্রিকায় পাড়ি জমাবেন।

ঢাকা থেকে প্রথম গ্রুপ শুক্রবার সকাল পৌনে ১১টায় দক্ষিণ আফ্রিকায় উড়াল দিবে। দ্বিতীয় গ্রুপের ফ্লাইট সকাল ১১টায়। তৃতীয় ও শেষ গ্রুপ শনিবার কাতার এয়ারওয়েজে রওনা হবে সকাল পৌনে ১১টায়।

আগামী ১৫ মার্চ জোহানেসবার্গে আন্তঃদলীয় একটি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। তারপর স্বাগতিকদের বিপক্ষে ১৮, ২০ ও ২৩ মার্চ আইসিসি সুপার লিগের অন্তর্ভুক্ত তিনটি ওয়ানডে খেলবে তারা।

একদিনের সিরিজ শেষে টেস্টের প্রস্তুতি নিতে ২৬-২৭ মার্চ দুই দিনের আন্তঃদলীয় প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। তারপর টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অন্তর্ভুক্ত দুটি ম্যাচ খেলবে তারা প্রোটিয়াদের সঙ্গে। ৩১ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল ডারবানে হবে প্রথম টেস্ট। দ্বিতীয় টেস্ট পোর্ট এলিজাবেথে ৮-১২ এপ্রিল।

এই সিরিজে সাকিব আল হাসান নেই। তার আবেদনের প্রেক্ষিতে বিসিবি ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত তাকে ছুটি দিয়েছে।

দক্ষিণ আফ্রিকায় কোনো ম্যাচ না জেতা বাংলাদেশ এবার উচ্চাশা নিয়ে মাঠে নামবে। নিউ জিল্যান্ডে সাম্প্রতিক সাফল্য তাদের আত্মবিশ্বাসী করে তুলেছে। ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল সেই দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন, ‘আমরা ওয়ানডে ক্রিকেটে এমন একটা অবস্থানে আছি, জেতা ছাড়া অন্য কিছু বলাটা উচিত হবে না আসলে। অবশ্যই জয়ের লক্ষ্য নিয়েই দক্ষিণ আফ্রিকা যাব। সঙ্গে এটাও সত্যি যে, এটা কঠিন। ওখানে আমাদের রেকর্ড ওতটা ভালো না। রেকর্ড জিনিসটাই এমন যে যেকোনো মুহূর্তে পরিবর্তন হতে পারে।’

জয়ের জন্য সর্বোচ্চটা নিংড়ে দিবে দল, বললেন তামিম, ‘আমরা সবাই জানি এটা চ্যালেঞ্জিং। ওদের কন্ডিশনে ওরা খুবই ভালো দল। আমরা আমাদের সর্বোচ্চটা দিয়ে চেষ্টা করব। আমি বলে যাব, আমরা ভালো ক্রিকেট খেলতে চাই, যেটা হয়তোবা আজ থেকে ১০ বছর আগে বলতাম। আমি এখন বলব, আমরা অবশ্যই জিততে চাই। এর জন্য যা যা করার দরকার তা করব। তারপর যদি ফল আমাদের পক্ষে আসে তাহলে খুব ভালো। যদি না আসে আমরা আবারো কঠিন পরিশ্রম করব।’

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ১১ মার্চ

Back to top button