জানা-অজানা

১০৭ বছর পর পাওয়া গেল হারিয়ে যাওয়া জাহাজ

ডুবে যাওয়ার ১০৭ বছর পর বিজ্ঞানীরা সবচেয়ে বড় অনাবিষ্কৃত জাহাজের ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পেয়েছেন এবং চিত্রায়িত করেছেন। দ্য এন্ডুরেন্স, অ্যান্টার্কটিক এক্সপ্লোরার স্যার আর্নেস্ট শ্যাকলটনের হারিয়ে যাওয়া জাহাজটি সপ্তাহান্তে ওয়েডেল সাগরের তলদেশে পাওয়া গিয়েছে।

জাহাজটি সমুদ্রের বরফ দ্বারা চূর্ণ হয়ে যায় এবং ১৯১৫ সালে ডুবে যায়, শ্যাকলটন এবং তার সঙ্গীরা পায়ে হেঁটে এবং ছোট নৌকায় বিস্ময়করভাবে বিপদ পাড়ি দিয়ে বেঁচে যান। ভিডিওতে দেখা যায়, ধ্বংসাবশেষ স্পষ্ট রয়েছে। যদিও এটি এক শতাব্দীরও বেশি সময় ধরে ৩ কিমি (১০০০০ ফুট) পানির নিচে, এটি দেখতে এখনও ১৯১৫ সালের নভেম্বরের দুর্ঘটনার দিনের মতোই লাগছে। এর কাঠের কাঠামো কিছুটা জীর্ণ হলেও এখনো একসঙ্গে যুক্ত রয়েছে। জাহাজের নামটিও স্টার্নে স্পষ্টভাবে দৃশ্যমান।

সামুদ্রিক প্রত্নতত্ত্ববিদ মেনসুন বাউন্ড বলেছেন, “কোনও অতিরঞ্জন ছাড়াই এটি আমার দেখা সবচেয়ে ভালো কাঠের জাহাজ। বাউন্ড জাহাজটির আবিষ্কার অভিযানে যুক্ত ছিলেন। এটি খুঁজে পাওয়া তার প্রায় ৫০ বছরের ক্যারিয়ারের একটি স্বপ্ন ছিল। তিনি বিবিসি নিউজকে বলেন, “এটি খাড়া, সমুদ্রতলের জন্য গর্বিত, অক্ষত এবং একটি উজ্জ্বল অবস্থায় আছে”।

এন এইচ, ১০ মার্চ

Back to top button