ক্রিকেট

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে লক্ষ্য কি জানালেন তামিম

ঢাকা, ০৯ মার্চ – দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের জন্য মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ঘাম ঝরাচ্ছেন জাতীয় দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালসহ অন্যান্য ক্রিকেটাররা। অধিনায়ক তামিম কাজ করছেন ব্যাটিং কোচ জেমি সিডন্সের সঙ্গেও। সফরকে সামনে রেখে আজ (৯ মার্চ) সংবাদকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেছেন তামিম।

৬ টেস্ট, ৯ ওয়ানডে এবং ৪ টি-টোয়েন্টি খেলেও দক্ষিণ আফ্রিকায় এখন পর্যন্ত জয়ের মুখ দেখেনি বাংলাদেশ। তবে এবার দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে তাদের বিপক্ষে জিততে চাওয়ার কথাই বলেছেন জাতীয় দলের এই ওয়ানডে অধিনায়ক। কাজটা কঠিন, রেকর্ডও নিজেদের পক্ষে নেই। নিউজিল্যান্ডে জয়ের স্মৃতি টেনে তামিম জানিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকায়ও জিততেই চান তারা।

গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তামিম বলেন, ‘দেখুন, ওয়ানডে ক্রিকেটে আমরা এমন একপর্যায়ে আছি, জেতা ছাড়া অন্য কিছু বলাটা আমার উচিত হবে না। অবশ্যই জেতার লক্ষ্য নিয়ে আমরা যাব। আবার এটাও সত্য, কাজটা কঠিন। ওখানে আমাদের রেকর্ডও তেমন ভালো না। কিন্তু রেকর্ড বিষয়টাই এমন, যেকোনো মুহূর্তেই তা পাল্টে যেতে পারে। এটার দারুণ উদাহরণ ছিল, নিউজিল্যান্ডে টেস্ট, যেখানে আমরা কোনো সংস্করণে ভালো না খেললেও তা পাল্টাতে পেরেছি।’

‘এটা না যে আমি বলে যাব, আমরা ভালো ক্রিকেট খেলতে চাই। ১০ বছর আগে হয়তো এটাই বলতাম। না, আমি অবশ্যই জিততে চাই ওখানে। সে জন্য যা যা করার দরকার করব। এরপর ফল পক্ষে এলে খুব ভালো, না হলে আমরা আরও কঠোর পরিশ্রম করব।’- যোগ করেন তামিম।

তামিম জানিয়েছেন, তার দলের সবাই বিশ্বাস করে তারা ভালো করতে পারবে, দক্ষিণ আফ্রিকায় জিততে পারবে। নিউজিল্যান্ডে টেস্ট জয়ের অনেকেই আছেন এই দলে। তামিম আশা করছেন, দক্ষিণ আফ্রিকায়ও এই দল অতীত রেকর্ড বদলাতে পারবেন।

তামিম আরও যোগ করেন, ‘দল যে জিততে পারে, এটা কিন্তু আমরা বিভিন্ন সংস্করণে প্রমাণ করছি। নিউজিল্যান্ডের কথাই ধরুন, ৩০-৩২টা ম্যাচ আমরা জিততে পারিনি। কিন্তু ওই দলটা কিন্তু এটা পাল্টেছে। আশা করি, এই দলটাও (দক্ষিণ আফ্রিকায়) তা পাল্টাতে পারবে। আমি আমার দল নিয়ে একটা বিষয় বলতে পারি, সবাই বিশ্বাস করে আমরা ভালো করতে পারব।’

দক্ষিণ আফ্রিকায় জয়ের জন্য সবাইর অংশগ্রহণ চাইছেন অধিনায়ক তামিম। সবার ভাবনার কথা শুনবেন বলেও জানিয়েছেন এই ক্রিকেটার। নিউজিল্যান্ডে যারা টেস্ট জয়ের অংশ ছিল তাদের অভিজ্ঞতাও জানতে চাইবেন অধিনায়ক।

তামিম বলেন, ‘তাদের জিজ্ঞেস করব, ঘুরে দাঁড়াতে চিন্তার জায়গাটা কী ছিল। শুধু আমাকেই যে কথা বলতে হবে, তা নয়; সবাই কথা বলতে পারে, নিজেদের ভাবনাটা ভাগ করে নিতে পারে। তাদের জিজ্ঞেস করব, ঘুরে দাঁড়াতে চিন্তার জায়গাটা কী ছিল। শুধু আমাকেই যে কথা বলতে হবে, তা নয়; সবাই কথা বলতে পারে, নিজেদের ভাবনাটা ভাগ করে নিতে পারে।’

আগামী ১৮ মার্চ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু হবে বাংলাদেশের। যা শেষ হবে ২৩ মার্চ। এরপর ৩০ মার্চ থেকে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজও খেলবে টাইগাররা।

সূত্র : আরটিভি
এম এস, ০৯ মার্চ

Back to top button