ইউরোপ

নিরাপত্তাহীনতা: ইউক্রেন ছেড়েছেন ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত

কিয়েভ, ০৭ মার্চ – চলমান রুশ আগ্রাসনের প্রেক্ষিতে ইউক্রেনে নিযুক্ত ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূত মেলিন্ডা সিমন্স সেদেশ ছেড়ে চলে গেছেন। “মারাত্মক নিরাপত্তা ঝুঁকির” কারণ দেখিয়ে ইউক্রেন ছেড়েছেন তিনি।

সোমবার ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাসের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

এর আগে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নির্দেশের পর থেকে ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া। এ অভিযানের অংশ হিসেবে স্থল, আকাশ ও জলপথে ইউক্রেনে হামলা চালাতে শুরু করে রুশ সেনারা।

রুশ সেনারা ইউক্রেন আক্রমণের আগেই কিয়েভে অবস্থিত ব্রিটিশ দূতাবাস ছাড়েন মেলিন্ডা সিমন্স। দূতাবাসের সহকর্মীদের নিয়ে রাজধানী কিয়েভ ছেড়ে পশ্চিম ইউক্রেনের শহর লভিভে স্থানান্তরিত হন ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত।

রুশ আগ্রাসনের মুখে পোল্যান্ডের সীমান্তের কাছে অবস্থিত লভিভকে তুলনামূলকভাবে কম ঝুঁকিপূর্ণ ভেবে সেখানে স্থানান্তরিত হয়েছিলেন তিনি। এবার সেখানেও নিরাপত্তার অভাব বোধ করায় লাভিভ ছেড়েও চলে গিয়েছেন ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত।

ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস জানিয়েছেন, বর্তমানে ইউেক্রনে অবস্থিত ব্রিটিশ দূতাবাসের সমস্ত অফিস বন্ধ রয়েছে।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/০৭ মার্চ ২০২২

Back to top button