ক্রিকেট

আইপিএলে দল পেলে সাকিব ‘মানসিকভাবে বিপর্যস্ত’ থাকত?- প্রশ্ন পাপনের

ঢাকা, ০৭ মার্চ – আফগানিস্তান সিরিজটা মোটেই উপভোগ করেননি সাকিব আল হাসান। ঘরের মাঠে আফগানদের বিপক্ষে ৩টি ওয়ানডে ও ২টি টি-টোয়েন্টি খেলার পর রোববার দুবাইয়ের উদ্দেশে দেশ ছাড়েন সাকিব আল হাসান। কদিন পরেই রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর। চলতি মার্চে ৩টি ওয়ানডে ও ২টি টেস্ট ম্যাচের দলে রাখা হয়েছে সাকিবকে।

তবে দেশ ছাড়ার আগে সাকিব বলে যান আফগানিস্তান সিরিজ মোটেই উপভোগ করেননি তিনি। মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত সাকিবের মন টানছে না দক্ষিণ আফ্রিকায় খেলতে। তাই ক্রিকেট থেকে কিছুদিন ছুটি চান তিনি।

“দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ নিয়ে যেটা বলতে হয়…মানসিক ও শারীরিক যে অবস্থায় আছি আমার কাছে মনে হয় না আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা সম্ভব খুব একটা। এই কারণে আমার মনে হয়, যদি আমি একটা বিরতি পাই, আমি যদি ওই আগ্রহটা ফিরে পাই তাহলে আমার খেলাটা সহজ হবে। কারণ আফগানিস্তান সিরিজে আমার কাছে মনে হয়েছে আমি একজন যাত্রী যেটা হয়ে আমি কখনোই থাকতে চাই না। আমি খেলাটা একদমই উপভোগ করতে পারিনি।”

এর আগে বিসিবিকে দেয়া চিঠিতে জানানো হয়েছিল, দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের টেস্ট সিরিজের সময় আইপিএল থাকায় এই সময়টায় ছুটি নিতে চান। তবে আইপিএলে দল না পাওয়ায় সাকিব বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসানকে জানান, খেলতে সমস্যা নেই দক্ষিণ আফ্রিকায়।

এখন হুট করেই আবার দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে না যেতে চাওয়ায় চটেছেন পাপন। সোমবার গণমাধ্যমে জানিয়েছেন, “মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হলে আইপিএল খেলতে যাচ্ছিলো কেন? মানসিকভাবে বিপর্যস্ত থাকলে বলতো আমি আইপিএলও খেলবো না। ধরেন আইপিএলেও নেয়া হলো। তখন কি বলতো আমি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত! জিনিসটি আমার মাথায়ই ঢুকছে না।”

সাকিব আফগানিস্তান সিরিজ উপভোগ করেননি ইস্যুতে পাপন বলেছেন, “তার যদি অফ ফর্ম থাকে, খেলতে ইচ্ছে না করে তাহলে সে বলতো খেলবো না। সমস্যাটা কোথায়? তাহলে খেলা শেষ হয়ে যাওয়ার পরে যদি বলে আমি ইনজয় করিনি। আগ্রহ নেই, মোটিভেশন নাই। এগুলা না থাকলে খেলছো কেন? তো আমাদেরকে বলো। কাউকে না কাউকে বলতে তো হবে। যে আমার এখন খেলার প্রতি কোনো আগ্রহ নেই। খেলো না। বলে খেলবে, এরপর এমন মন্তব্য করবে। এটা তো কোনোভাবে হতে পারে না।”

সূত্র : আরটিভি
এম এস, ০৭ মার্চ

Back to top button