বলিউড

ফ্লাইটে নাচার জন্য কত টাকা নিয়েছেন সামান্থা?

হায়দ্রাবাদ, ০৩ মার্চ – ভারতের দক্ষিণী সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা সামান্থা রুথ প্রভু। আল্লু অর্জুন অভিনীত সাড়া জাগানো সিনেমা ‘পুষ্পা : দ্য রাইজ’ এর আইটেম গানে প্রথমবারের মতো নেচে বেশ আলোচনার সৃষ্টি করেন এই অভিনেত্রী। আবেদনময়ী রূপে সকলের নজর কাড়েন তিনি। সম্প্রতি আরও একটি গানে নেচে ভাইরাল হয়েছিলেন সামান্থা।

গেল ১৭ ফেব্রুয়ারি লেট নাইট ফ্লাইটে আরবি একটি গানে নেচেছেন সামান্থা। ‘হালামিথি হাবিবো’ গানে সেই নাচের ভিডিওটি অনুরাগীদের দেখার সুযোগ করে দিয়েছেন তিনি। তার পরনে ছিল কালো প্যান্ট এবং ডেনিম জিন্সের জ্যাকেট। ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করার পর মুহূর্তেই সেটি ভাইরাল হয়েছে।

ক্যাপশনে লিখেছেন, আরও একটি গভীর রাতের ফ্লাইট। কিন্তু না! আজ রাতের জন্য ছন্দ হালামিথি হাবিবো।

এদিকে সামান্থা যে গানে নেচেছেন সেটি থালাপাতি বিজয় ও পূজা হেগড়ের ‘বিস্ট’ সিনেমার জন্য তৈরি করা হয়েছে। আরবি ভাষার ‘কুথু’ গানটি ‘হালামাথি হাবিবি’ শিরোনামে নতুন রূপে সামনে এসেছে। কয়েকদিন আগে মুক্তি পাওয়া গানটি অন্তর্জালে উত্তাপ ছড়াচ্ছে। চার দিনে গানটির ভিউ দাঁড়ায় ৪৮ মিলিয়ন।

নেটিজেনদের ধারণা, মজা করেই গানটিতে নেচেছেন সামান্থা। কিন্তু এ ধারণা সঠিক নয় বলে দাবি করেছেন ভারতীয় সংবাদমাধ্যম গালতে ডটকম। এক প্রতিবেদনে গণমাধ্যমটি জানিয়েছে, ইনস্টাগ্রামে এই নাচের ভিডিও পোস্ট করেছিলেন সামান্থা। মানুষ যখন ভিডিওটি দেখেছেন, তখন এটি স্পন্সর ভিডিও হিসেবে দেখা গেছে। সামান্থা এই নাচের জন্য মোটা অঙ্কের টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছেন। আর নির্মাতারা প্রচারের জন্য কাজটি করেছেন।

প্রসঙ্গত, সামান্থার প্রথম আইটেম গান ‘পুষ্পা : দ্য রাইজ’ সিনেমাটিতে নতুন মাত্রা যোগ করেছে। ‘ও আন্তাভা, ও ও আন্তাভা’ শিরোনামের ৩ মিনিট ৪৮ সেকেন্ডের এই আইটেম গানে নেচে বাংলাদেশি মুদ্রায় সাড়ে ৫ কোটি টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছেন এই অভিনেত্রী।

তবে সামান্থার এই আইটেম গানটি নিয়ে আপত্তি করে অন্ধ্র প্রদেশের একটি পুরুষদের সংস্থা। তাদের অভিযোগ, এই গানে পুরুষদের বিকৃত মানসিকতার এবং যৌন পিপাসু হিসেবে দেখানো হয়েছে। পাশাপাশি গানটি নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়েছিলেন তারা।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Samantha (@samantharuthprabhuoffl)


এম এস, ০৩ মার্চ

Back to top button