ব্যবসা

স্বর্ণের দাম ভরিতে ৩২৬৫ টাকা পর্যন্ত বাড়ল

ঢাকা, ০৩ মার্চ – বিশ্ববাজারে দাম বাড়ার প্রেক্ষিতে বাংলাদেশের বাজারেও স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়েছে। সব থেকে ভালো মানের স্বর্ণের দাম ভরিতে তিন হাজার ২৬৫ টাকা বাড়িয়ে স্বর্ণের নতুন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। এতে ভালো মানের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ৭৮ হাজার ২৬৫ টাকা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) থেকেই স্বর্ণের এই নতুন দাম কার্যকর করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)।

ভালো মানের স্বর্ণের পাশাপাশি বাড়ানো হয়েছে সব ধরনের স্বর্ণের দাম। মান অনুযায়ী প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়েছে দুই হাজার ২১৬ টাকা থেকে তিন হাজার ২৬৫ টাকা পর্যন্ত। তবে রুপার দামে কোনো পরিবর্তন আসেনি।

বাজুসের মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটি ১ মার্চ বৈঠক করে এই দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়। পরে মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সভাপতি এম এ হান্নান সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে দাম বাড়ানোর এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

নতুন মূল্য অনুযায়ী, সবচেয়ে ভালো মানের বা ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম তিন হাজার ২৬৫ টাকা বাড়িয়ে করা হয়েছে ৭৮ হাজার ২৬৫ হাজার টাকা।

২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম তিন হাজার ৯১ টাকা বাড়িয়ে ৭৪ হাজার ৭৬৬ টাকা করা হয়েছে। ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম দুই হাজার ৩৩৩ টাকা বাড়িয়ে ৬৪ হাজার ১৫২ টাকা করা হয়েছে। আর সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম দুই হাজার ২১৬ টাকা বাড়িয়ে করা হয়েছে ৫৩ হাজার ৪২১ টাকা।

এর আগে গত ৯ ফেব্রুয়ারি ঘোষণা দিয়ে স্বর্ণের দাম বাড়ায় বাজুস। যা কার্যকর হয় ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে। সেসময় সবচেয়ে ভালো মানের ২২ ক্যারেট প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম এক হাজার ৮৬৭ টাকা বাড়িয়ে ৭৫ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়।

এছাড়া ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণ এক হাজার ৬৯১ টাকা বাড়িয়ে ৭১ হাজার ৬৭৫ টাকা করা হয়। ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণ ৮১৪ টাকা বাড়িয়ে করা হয় ৬১ হাজার ৮১৯ টাকা। আর সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ২৯১ টাকা বাড়িয়ে করা হয় ৫১ হাজার ২০৫ টাকা।

স্বর্ণের দাম বাড়লেও রুপার আগের নির্ধারিত দামই বহাল রয়েছে। ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি রুপার মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে এক হাজার ৫১৬ টাকা। ২১ ক্যারেটের রুপার দাম এক হাজার ৪৩৫ টাকা, ১৮ ক্যারেটের এক হাজার ২২৫ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির রুপার দাম ৯৩৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

এদিকে রাশিয়া ইউক্রেনে আগ্রাসন শুরু করার পর বিশ্ববাজারে বিভিন্ন পণ্যের দাম লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। এরই মধ্যে জ্বালানি তেলের দাম বেড়ে ১১ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ দামে উঠে এসেছে। জ্বালানি তেলের মতো বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দামেও অস্থিরতা দেখা যাচ্ছে। এরই মধ্যে এই দামি ধাতুর দাম বেড়ে ১৩ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ দামে উঠে এসেছে।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ইউক্রেনে আগ্রাসন শুরু করে রাশিয়া। রাশিয়া হামলা শুরুর পর ব্যাপক প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। ইউক্রেইন থেকে ১০ লাখের বেশি মানুষ প্রতিবেশী দেশগুলোতে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় নিয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা শুরু করার পরপরই বিশ্ববাজারে বিভিন্ন পণ্যের দামে বেশ অস্থিরতা দেখা দেয়। এ তালিকায় রয়েছে দামি ধাতু স্বর্ণও।

রাশিয়া ইউক্রেনে আক্রমণ শুরু করার পর গেল এক সপ্তাহে বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম বেড়েছে ১ দশমকি ২৭ শতাংশ বা ২৪ ডলার। এতে এরই মধ্যে (বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা ৩০ মিনিট) প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৯৩০ দশমিক ৯০ ডলারে উঠে এসেছে। এতে ১৩ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ দামে উঠে এসেছে স্বর্ণ।

স্বর্ণের পাশাপাশি গেল এক সপ্তাহে বিশ্ববাজারে রুপা ও প্লাটিনামের দামও বেড়েছে। গেল এক সপ্তাহে ৫ দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ বেড়ে প্রতি আউন্স রুপার দাম দাঁড়িয়েছে ২৫ দশমিক ৩৮ ডলারে।

আরেক দামি ধাতু প্লাটিনামের দাম গত সপ্তাহজুড়ে বেড়েছে ২ দশমিক ৬২ শতাংশ। এতে প্রতি আউন্স প্লাটিনামের দাম দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৮৬ দশমিক ২৪ ডলার।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/০৩ মার্চ ২০২২

Back to top button