উত্তর আমেরিকা

মুখ ফসকে ইউক্রেনের জায়গায় ইরান বললেন বাইডেন

ওয়াশিংটন, ০২ মার্চ – রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সামরিক অভিযান ঘোষণার পর ইউক্রেনে সপ্তম দিনেও চলছে সংঘর্ষ। এদিন ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে অভিযান চালাচ্ছে রুশ সেনারা। ইতোমধ্যে দেশটির দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারকিভে বিমান হামলা চালিয়েছে রুশ সেনারা। একইসাথে দেশটির খারসন শহর দখলের দাবি করা হয়েছে।

এদিকে যুদ্ধের চলামান পরিস্থিতি নিয়ে মঙ্গলবার (১ মার্চ) রাতে স্টেট অব দ্য ইউনিয়নে বক্তৃতা দেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। বক্তৃতায় ইউক্রেনের জায়গায় ভুল করে ইরানের কথা বলে ফেলেন বাইডেন। তার এই বক্তব্যের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা চলছে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাইডেন তার বক্তৃতায় বলেন, পুতিন ট্যাংক নিয়ে কিয়েভ ঘিরে ফেলতে পারেন, কিন্তু তিনি কখনই ইরানি জনগণের হৃদয় জয় করতে পারবেন না। যদিও সঙ্গে সঙ্গেই পাশ থেকে তার ভুল শুধরে দেন দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস। তিনি বাইডেনকে বলেন, ইরান নয় ‘ইউক্রেনীয়ান’ হবে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) পুতিনের সামরিক অভিযান ঘোষণার কয়েক মিনিট পরেই ইউক্রেনে বোমা ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু করে রুশ সেনারা। এরপর থেকে ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ চলছে। যুদ্ধে এখন পর্যন্ত ইউক্রেনের ৩৭৩ জন নিহত এবং রাশিয়ার ৫ হাজার ৮৪০ সেনাকে হত্যার দাবি ইউক্রেনের।

এদিকে ইউক্রেনে পুতিনের এমন হামলার পর থেকে পশ্চিমা বিভিন্ন দেশ, বিশেষ করে ন্যাটোভুক্ত দেশগুলো রাশিয়ার ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের পাশাপাশি নানা চাপ তৈরি করলেও ইউক্রেনে সামরিক অভিযান অব্যাহত রেখেছেন রুশ পুতিন।

সূত্র : আরটিভি
এম এস, ০২ মার্চ

Back to top button