ক্রিকেট

আবারও পয়েন্ট হারিয়ে হতাশ তামিম

চট্টগ্রাম, ০১ মার্চ – সিরিজ জিতলেও হাসি নেই তামিম ইকবালের ঠোঁটে। বিব্রতকর ব্যাটিংয়ে ঘরের মাঠে পয়েন্ট খোয়াতে হয়েছে আফগানিস্তানের বিপক্ষে। প্রথম ম্যাচে ধুঁকতে ধুঁকতে আফিফ-মিরাজের বীরত্বে জয় দিয়ে সিরিজ শুরু। দ্বিতীয় ম্যাচে লিটনের সেঞ্চুরিতে দাপুটে জয়ে সিরিজ জয় নিশ্চিত হয়। আর শেষ ম্যাচে এসে যেন অসহায় আত্মসমর্পণ করলো টাইগাররা।

তাইতো তামিমের কণ্ঠে ম্যাচ শেষে ফুটে উঠেছে হতাশা। এই ম্যাচে জিতলে ওয়ানডে সুপার লিগে গুরুত্বপূর্ণ ১০ পয়েন্ট যোগ হতো বাংলাদেশের ঝুলিতে। কিন্তু বিধিবাম। ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও একই কাণ্ড ঘটেছিল লাল-সবুজের জার্সিধারীরা। সিরিজ নিশ্চিতের পর শেষ ম্যাচে হেরেছিল।

তামিম বলেন, ‘খুবই হতাশ। আমরা শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও একই অবস্থায় ছিলাম। কিন্তু শেষ করতে পারিনি। আবার একই জিনিস ঘটেছে।’

বাংলাদেশ এই ম্যাচ হারলেও অবশ্য পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষেই আছে। ১৫ ম্যাচের ১০টিতে জিতে ও ৫টিতে হেরে ১০০ পয়েন্ট রয়েছে টাইগারদের ঝুলিতে। সমান ম্যাচ থেকে ৯৫ পয়েন্ট নিয়ে ইংল্যান্ড আছে দ্বিতীয় স্থানে। ১২ ম্যাচ থেকে ৭৯ পয়েন্ট নিয়ে ভারত আছে তৃতীয় স্থানে। ৯ ম্যাচের ৭টিতে জিতে ও ২টিতে হেরে আফগানিস্তানের মোট পয়েন্ট এখন ৭০। তারা অবস্থান নিয়েছে চতুর্থ স্থানে।

সোমবার পয়েন্ট টেবিলে নিজেদের অবস্থান আরও পাকাপোক্ত করার ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিং নেয় বাংলাদেশ। দারুণ শুরুর পরও বাংলাদেশ খেই হারিয়ে ফেলে। ৮৮ রানের ব্যবধানে হারায় ৯ উইকেট! বাংলাদেশ থামে ১৯২ রানে। তার মধ্যে সর্বোচ্চ ৮৬ রান লিটন দাসেরই। রান তাড়া করতে নেমে রহমানুল্লাহ গুরবাজের সেঞ্চুরিতে ৫৯ বল হাতে রেখে ৭ উইকেটে জিতে মাঠ ছাড়ে আফগানিস্তান।

ব্যাটিং ব্যর্থতাকে দুষে তামিম বলেন, ‘আমরা শুরুটা ভালো করেছিলাম। মাঝপথে খেই হারিয়ে ফেলি। লিটন আউট হয়েছে ভুল সময়ে। আমি ভেবেছিলাম এটি সিরিজের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ, এখান থেকে পয়েন্ট অর্জন করে অবস্থান যতোটা শক্ত করা যায়।’

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ০১ মার্চ

Back to top button