ইউরোপ

ইউক্রেনের পাইলটের ৬ রুশ যুদ্ধবিমান ধ্বংস করার খবর ‘মিথ্যা’

কিয়েভ, ২৮ ফেব্রুয়ারি – ইউক্রেনে রুশ হামলার প্রথম দিন গত বৃহস্পতিবার একের পর এক রাশিয়ান যুদ্ধবিমান ধ্বংস করার খবর আসে।

‘এক অদৃশ্য পাইলট’ যুদ্ধ শুরুর পর ৩০ ঘণ্টায় পর পর ৬ টি রুশ বিমান ভূপাতিত করেছেন একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ইউক্রেনের দাবি তাদের দেশের একজন বিমানচালক এই সাহসিকতা দেখিয়েছেনে।

ওই চালককে ‘গোস্ট অব কিভ’ বলা হচ্ছে। তাকে নায়কের আসনে স্থান দিয়েছে ভোলোদিমির জেলেনস্কি সরকার। তবে ইউক্রেন সরকারের এই দাবি ঘিরে উঠছে নানা প্রশ্ন। পরে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, ইউক্রেনের ওই দাবি আসলে সঠিক নয়।

টুইটারে ভাইরাল হওয়া অসংখ্য ভিডিওতে দেখা গেছে, ইউক্রেনের ‘মিগ-২৯’ যুদ্ধবিমানের চালকের আসনে এক হেলমেটধারী। ইউক্রেনের নানা শহরে যুদ্ধবিমান নিয়ে উড়ে বেড়াচ্ছেন তিনি। এমনকি, নিখুঁত লক্ষ্যভেদে আকাশ থেকে নামিয়ে আনছেন রাশিয়ান বিমান।

ইউক্রেনের অজানা ওই বিমানচালকের এহেন কীর্তির সত্যতা নিয়ে প্রশ্নের মধ্যেই একটি ভিডিওতে ৫০ লাখের বেশি লাইক পড়েছে।

একটি ভাইরাল পোস্টে এক জনের দাবি, ‘রাশিয়ান দু’টি এসইউ-৩৫, একটি এসইউ-২৭, একটি মিগ-২৯ এবং দু’টি এসইউ-২৫ বিমান ধ্বংস করে দিয়েছে গোস্ট অব কিভ।

তবে এ সবই গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছে নানা সংবাদমাধ্যম থেকে শুরু করে টুইটার ব্যবহারকারীদের একাংশ।

‘গোস্ট অব কিভ’-এর অস্তিত্বকে নাকচ করে দিয়েছে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স। তাদের দাবি, টুইটারে ভাইরাল ওই ভিডিওটি ভুয়া। সেটি আসলে ২০০৮ সালে ‘ডিজিটাল কমব্যাট সিমুলেটর’ (ডিসিএস) নামে একটি ভিডিও গেমের একটি ফুটেজ।

সূত্র : যুগান্তর
এন এইচ, ২৮ ফেব্রুয়ারি

Back to top button