দক্ষিণ এশিয়া

হিজাব বিতর্কের পর এবার সিঁদুর পরায় কর্ণাটকে কলেজে ঢুকতে বাধা

বেঙ্গালুরু, ১৯ ফেব্রুয়ারি – হিজাব বিতর্কের পর ভারতের কর্ণাটকের হাইকোর্ট এক অন্তর্বর্তী রায়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সব ধরনের ধর্মীয় প্রতীক নিষিদ্ধ করেছে। ওই আদেশের জের ধরে কর্ণাটকের বিজয়পুর জেলার ইন্দি কলেজের অধ্যক্ষ সিঁদুর পরায় এক শিক্ষার্থীকে কলেজে প্রবেশ করতে দেননি।

শুক্রবার সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই শিক্ষার্থী যখন কলেজে প্রবেশ করছিল তখন তাকে আটকে দিয়ে বলা হয়, কোনো ধরনের ধর্মীয় চিহ্ন নিয়ে কলেজে যাওয়া যাবে না। তাকে সিঁদুর মুছে ফেলতেও বলা হয়।

এদিকে ওই শিক্ষার্থীর স্বজনরা স্কুল প্রাঙ্গণে এসে স্কুল কর্তৃপক্ষকে উল্টো প্রশ্ন করে। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে ওই শিক্ষার্থীকে ক্লাসরুমে ঢুকতে দেওয়া হয়।

এদিকে এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে শ্রীরাম সেনের প্রতিষ্ঠাতা প্রমোদ মুথালিক ওই কলেজের অধ্যক্ষকে সাময়িক বরখাস্তের দাবি জানিয়েছেন।

তার দাবি, সিন্ধুর কোনো ধর্মীয় প্রতীক নয়। এটি দেশের সংস্কৃতির একটি অংশ।

অন্যদিকে, বেলাগাভি জেলার খানাপুরার নন্দঘাদ কলেজে হিজাব পরা মুসলিম শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে জাফরান শাল পরে ক্লাসে যোগ দিতে আসা শিক্ষার্থীদেরও কলেজে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি।

এদিকে, হাইকোর্টের ওই অন্তর্বর্তী রায়ের পর আগে যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হিজাব পরা নিয়ে কোনো বিধিনিষেধ ছিল না, তারাও ছাত্রীদের হিজাব পরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ করতে দেয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে।

সূত্র : যুগান্তর
এন এইচ, ১৯ ফেব্রুয়ারি

Back to top button