বলিউড

মুক্তির আগেই বিতর্কে আলিয়া ভাটের ‘গাঙ্গুবাঈ ’ (ভিডিও)

মুম্বাই, ১৭ ফেব্রুয়ারি – মুক্তির আগে ফের বিতর্কে জড়িয়েছে আলিয়া ভাট অভিনীত ‘গাঙ্গুবাঈ কাথিয়াওয়াড়ি’। সঞ্জয়লীলা বনশালি পরিচালিত ‘গাঙ্গুবাঈ’কে দেখানো হয়েছে, যৌনকর্মী হিসেবে। এতে চরমভাবে ক্ষুব্ধ তার পরিবার।

‘গাঙ্গুবাঈ’য়ের দত্তক-সন্তান বাবুরাওজি শাহ এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

খবরে বলা হয়, হুসেন জাইদির বিখ্যাত উপন্যাস ‘মাফিয়া কুইনস অব মুম্বাই’-এর ওপর ভিত্তি করে ‘গাঙ্গুবাঈ কাথিয়াওয়াড়ি’ চলচ্চিত্র তৈরি করেছেন সঞ্জয়লীলা বনশালি।

গাঙ্গুবাইয়ের পরিবারের অভিযোগ, মুম্বাইয়ের কাথিয়াওয়াড়ির বাসিন্দা গঙ্গা হরিজীবনদাস ওরফে ‘গাঙ্গুবাঈ’কে যেভাবে এই সিনেমাতে বর্ণনা করা হয়েছে, তা একেবারেই ঠিক নয়।

গঙ্গা হরিজীবনদাসের ছেলে বাবুরাওজি শাহ বলেন, আমার মাকে যৌনকর্মীতে পরিণত করেছেন সঞ্জয়লীলা বনশালি। এখন লোকে তাকে নিয়ে খারাপ কথা বলছে।

‘গাঙ্গুবাঈ’-এর পারিবারিক আইনজীবীর দাবি, ‘গাঙ্গুবাঈকে ডন হিসেবে ছবিতে দেখানো হয়েছে।তাকে খুব খারাপভাবে ছবিতে দেখানো হয়েছে। এর কোনও ভিত্তি নেই। নোংরামি করা হয়েছে। একজন সমাজকর্মীকে, যৌনকর্মী হিসেবে ছবিতে দেখানো হয়েছে। কোন পরিবার এটা সহ্য করবে?’

তিনি আরও জানান, আগেই আদালতে একটা মামলা দায়ের হয়েছে। বাবুরাওজি শাহই যে গাঙ্গুবাঈয়ের ছেলে, আদালতে সেই প্রমাণও পেশ করা হয়েছে। তবে এখনও বিষয়টি বিচারাধীন।

‘গাঙ্গুবাঈ’-এর পারিবারিক আইনজীবীর অভিযোগ, “এখন পরিচিতরা গাঙ্গুবাঈয়ের পরিবারের দিকে প্রশ্নের আঙুল তুলছে। বারবার জিজ্ঞেস করছে গাঙ্গুবাঈ সমাজকর্মী ছিলেন নাকি যৌনকর্মী। পরিবারের সকলে মানসিক ভাবে ভেঙে পড়েছেন।”

গত বছর আদালতে একটা মানহানির মামলা দায়ের করেন ‘গাঙ্গুবাঈ’য়ের দত্তকসন্তান বাবুরাওজি শাহ। এর জেরে সঞ্জয়লীলা বনশালি ও আলিয়া ভাটের বিরুদ্ধে সমন জারি করে আদালত। ২৫ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাবে তুমুল আলোচিত এ চলচ্চিত্রটি।

এম এস, ১৭ ফেব্রুয়ারি

Back to top button