জাতীয়

জাতীয় দলে ক্রিকেট খেলতে চাই: সাগর-রুনির ছেলে

ঢাকা, ১১ ফেব্রুয়ারি – সাংবাদিক সাগর সারোয়ার ও মেহেরুন রুনি যখন নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার হলে তাদের ছেলে মাহির সারোয়ার মেঘ মাত্র সাড়ে ৫ বছর বয়সে এতিম হয়ে যায়।

মেঘ আর সেই ছোট্টটি নেই। তার বয়স এখন সাড়ে ১৫ বছর। উচ্চতায় ৫ ফুট ৭ ইঞ্চি।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ইয়ুথ টাইগার অনূর্ধ্ব-১৬ জোনাল ক্রিকেট টুর্নামেন্টে খেলছে সে।

মেঘের স্বপ্ন- একদিন জাতীয় দলের হয়ে দেশের প্রতিনিধিত্ব করবে। অলরাউন্ডার হতে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে মেঘ। তার প্রিয় ক্রিকেটার বিশ্বসেরা অন্যতম অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

তবে সাকিবের মতো স্পিনার নয় সে। পেস বোলিং অলরাউন্ডার সে। ব্যাটিংটা ভালোই জানা তার। তবে বোলিংটা একটু বেশি পছন্দ তার। এই বিভাগে বেশি আত্মবিশ্বাসী সে।

নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ার নিয়ে মেঘ জানিয়েছে, ‘আমাকে নিয়ে বাবা-মায়ের স্বপ্নের কথা আমি জানি না। তখন তো আমি ক্রিকেট খেলা শুরু করিনি। এখন আমি লেখাপড়ার পাশাপাশি ক্রিকেটও খেলছি। আমার স্বপ্ন একদিন জাতীয় দলে খেলব। আমি যদি টানা এক বছর অনুশীলন করতে পারি তাহলে অনূর্ধ্ব-১৯ জাতীয় দলে তো খেলতে পারবই তারপর জাতীয় দলেও খেলতে পারব ইনশাআল্লাহ। জাতীয় দলে খেলার সুযোগ পেলে বাবা-মা ওপার থেকেও অনেক খুশি হবেন। আমি তাদের খুশির জন্য জাতীয় দলে ক্রিকেট খেলতে চাই।’

২০১২ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি নির্মমভাবে হত্যা করা হয় সাগর সারোয়ার ও মেহেরুন রুনিকে। দীর্ঘ ১০ বছরেও বিচার হয়নি এই হত্যাকাণ্ডের। ৪৮ ঘণ্টার সেই বেধে দেওয়া সময় এখনও শেষ হয়নি। এই হত্যাকাণ্ডের বিচারের দাবিতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছেন সাংবাদিকরা।

সূত্র : যুগান্তর
এন এইচ, ১১ ফেব্রুয়ারি

Back to top button